বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

খুলনায় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা ও প্রতিমা ভাঙচুরের প্রতিবাদে গোপালগঞ্জে মানবন্ধন

Muktir Lorai / ৯৩ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: খুলনা রুপসার শিয়ালী গ্রামে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা, প্রতিমা ও বাড়িঘর ভাঙচুরের প্রতিবাদে মানবন্ধন কর্মসূচি ও সমাবেশ করেছে গোপালগঞ্জ জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও মহিলা ঐক্য পরিষদ।
বুধবার ১১ই আগষ্ট বিকালে গোপালগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে প্রায় দেড় ঘন্টাব্যাপী এ মানবন্ধন কর্মসূচি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
মহিলা ঐক্য পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শিপ্রা বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি ডাঃ অসিত মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক মনিন্দ্রনাথ বাড়ৈ মনি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দুলাল চন্দ্র বিশ্বাস, সদর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি সরোজ কান্তি বিশ্বাস, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির শিক্ষা ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক প্রাণতোষ আচার্য্য শিবু, শহর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ কুমার বিশ্বাস পল্টু, হরিচাঁদ গুরুচাঁদ সেবা সংঘের সভাপতি সুবল রায়, ডেভিট বৈদ্য প্রমুখ।
এসময় বক্তরা খুলনা রুপসার শিয়ালী গ্রামে প্রতিমা ও বাড়িঘর ভাঙচুর এবং সংখ্যালঘু স¤প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় প্রকৃত দোষীদের আইনের আওয়াতায় এনে শাস্তির দাবী জানায়। এছাড়া মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, পটুয়াখালীল কলাপাড়া, রাখাইনদের উচ্ছেদ, কোটালীপাড়ার কলাবাড়ীতে সংঘর্ষ, সাভারে প্রধান শিক্ষক মিন্টু বর্মনকে হত্যাসহ সারাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন, নিপিড়ন, লুটপাট, অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদেও বক্তব্য রাখেন বক্তারা। হিন্দুদের নিরাপত্তার জন্য সংখ্যালঘু বিষয়ক কমিশন ও মন্ত্রালয় গঠনে সরকারের প্রতি দাবী করেন তারা।
এর আগে দুপুরে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার হরিচাঁদ ঠাকুরের বাড়ি ওড়াকান্দির শ্রীশ্রী হরিচাঁদ ও গুরুচাঁদ ঠাকুরের মন্দির প্রাঙ্গণে এর প্রতিবাদ সমাবেশ করেন বাংলাদেশ মতুয়া মহাসংঘ এবং হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »