বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

ফরিদপুর জেলার আওয়ামী লীগের সভাপতি শামীন, সম্পাদক ইশতিয়াক (ভিডিও)

Muktir Lorai / ৫৫ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় শনিবার, ১৪ মে, ২০২২

আনোয়ার হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার: ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি হয়েছেন শামীম হক আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ইশতিয়াক আরিফ।

বৃহস্পতিবার জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন শেষে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্যাহ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেন।

শহরের সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে ত্রি-বার্ষিক এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। দুপুর ১২টার দিকে ভার্চুয়ালি এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কাজী জাফরউল্যাহ।

এ সম্মেলনে সভাপতি পদে ১০ এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ২১ জন প্রার্থী ছিলেন। সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে সভাপতি পদ প্রত্যাশী ১০ জন জনকে মঞ্চে ডেকে নেওয়া হয়। তাদের ১০ মিনিট সময় দেওয়া হয় নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে একক নাম বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য। একই ভাবে সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশী ২১ জনকে ডেকে নেওয়া হয়। তাদেরও নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে সমঝোতার মাধ্যমে একক নাম দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়।

১০ মিনিট পর সম্মেলনের প্রধান অতিথি কাজী জাফরউল্যাহ ঘোষণা মঞ্চে এসে বলেন, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীরা আলোচনা করে একক সিদ্ধান্তে আসতে পারেন নি। এসময়ে দলীয় প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর কাদেরের সঙ্গে কথা বলেছি।

‘তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলা আওয়ামী লীগের আগামী কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে যাদের মনোনীত করা হয়েছে তারা হলেন, সভাপতি পদে শামীম হক এবং সাধরাণ সম্পাদক পদে ইশতিয়াক আরিফ।’

শামীম হক গত কমিটিতে সহ-সভাপতি পদে ছিলেন। আর ইশতিয়াক আরিফ গত কমিটিতে তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ছিলেন। তার বাবা ভাষাসৈনিক এস এম নূর-উন-নবী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয় ২০১৬ সালের ২২ মার্চ। এর এক বছর পর ৭১ সদস্য নিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি প্রকাশ করা হয়।

দীর্ঘ সাত বছর পর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ফরিদপুর শহরের সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে। সম্মেলন ঘিরে শহরে অর্ধশতাধিক তোরণ নির্মাণ করা হয়। শহরজুড়ে ঝোলানো হয় শত শত বোর্ড-ব্যানার।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা। বিলুপ্ত কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেনের সঞ্চালনায় সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল অব. ফারুক খান, ড. আবদুর রাজ্জাক, শাহজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও সম্মেলনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ ও বিলুপ্ত, যুবলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক সাহাদাত হোসেন

জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেনসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »