শিরোনাম
খুলনায় দুই খালাতো বোনকে গন-ধর্ষণের অভিযোগে আটক-৩ পাথরঘাটা অস্বাভাবিক আকৃতি নিয়ে শিশুর জন্ম শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন: অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ দাউদকান্দিতে দুর্বৃত্তদের হামলায় সাংবাদিক গুরুত্বর আহত বিএনপির পায়ের নিচে মাটি নেই… কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক লাকসামে রোবটিক্স ও প্রোগ্রামিং রিফ্রেসার্স প্রশিক্ষণ কর্মশালা বালিয়াডাঙ্গীর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে দুদকে তলব কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী রিফাত ও বর্তমান মেয়র সাক্কুসহ ৬ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ নারীদের রাজনৈতিক নাগরিক সচেতনতা কার্যক্রম সভা অনুষ্ঠিত ভোলায় হাসপাতালের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

বরুড়ায় শোক দিবসে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত-৩

Muktir Lorai / ৫১৩ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় রবিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২১

স্টাফ রির্পোটার: কুমিল্লার বরুড়ায় ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উদযাপন শেষে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মাঝে সংঘর্ষে তিনজন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়েছে।

রবিবার (১৫ আগস্ট) বেলা ১১ টার দিকে বরুড়া পৌরসদর বাজারে ঝলম বাস স্ট্যান্ডের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, বরুড়া পৌরসদরে সকালে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে বরুড়া উপজেলা পরিষদ চত্তরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ এন এম মইনুল ইসলাম ও তার সমর্থকরা পুস্প অর্পন করেন।

এ সময় তাদের কিছু নেতাকর্মীকে জিরো পয়েন্টে গতিরোধ করে মাজহারুল ইসলাম নামের একজন কর্মীকে চাকু মেরে আঘাত করা হয়। সংবাদটি ছড়িয়ে পড়লে চেয়ারম্যান সমর্থকরা উত্তেজিত হয়ে এমপি গ্রুপের সমর্থকদের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষের সময় বরুড়া পৌরসভার আওয়ামী লীগের সদস্য আবু মিয়া ও কুমিল্লা (দঃ) জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দীন গুরুতর আহত হয়। পরে দলীয় নেতাকর্মীরা তাদেরকে উদ্ধার করে বরুড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে কুমেক হাসপাতালে প্রেরন করেন।

আহত নাসিরের ভগ্নপতি জহির জানান, নাসির তার নিজ (ফল) দোকানে অবস্থানরত ছিলেন। চেয়ারম্যান সমর্থকরা দোকানের সামনে দাড়িয়ে জামেলা সৃস্টি করে। পরে নাসির দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে হামলার স্বীকার হয়। তার মাথায় ৪ টা সেলায় লাগে এবং তার একটি হাত ভেঙ্গে যায়। বর্তমানে সে বরুড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।

এ ব্যাপরে বরুড়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক (চেয়ারম্যান সমর্থীত) গাজী বিল্লাল হোসেন জানান, আমরা থানা রোডস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে একটি শোক র্যালী বের করে উপজেলা পরিষদ চত্তরে গিয়ে সমবেত হই। এ সময় আমাদের মাজহার নামের একজন কর্মীকে এমপি সমর্থকদের মাঝে কে বা কহারা চাকু মেরে আঘাত করে। বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে আমাদের নেতাকর্মীরা উত্তেজিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আহত মাজহারকে কুমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। তার শরীরে ২৩টি সেলা দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে বরুড়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক (এমপি সমর্থীত) আবদুর রশিদ জানান, আমরা স্বাস্থ্য বিধি মেনে শোক দিবস উদযাপন শেষে অফিসে অবস্থান নিয়েছিলাম। এরপর সকল নেতাকর্মীরা বাড়ি ফিরে যান। আবু মিয়া অফিস থেকে বের হয়ে বাড়ি ফেরার পথে পৌরসদর বাজারের জিরো পয়েন্টে গেলে সেখানে তার উপর অতর্কিত হামলা চালানো হয়। আর নাছির উদ্দীনকে দোকানে অবস্থানরত অবস্থায় হামলা চালানো হয়। এ ব্যাপারে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বরুড়া থানা অফিসার ইনচার্জ ইকবাল বাহার মজুমদার জানান, আমরা এখনো মাঠে অবস্থান করছি। এ ব্যাপারে এখনো কারো সাথে যোগাযোগ হয়নি।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »