শিরোনাম
ডেউয়াতলী গ্রামের মরহুম মোঃ কোব্বাদ খান ও মান্নান চৌধুরী পরিবারবর্গকে নিয়ে সফিউল্লা খন্দকারের মানহানিকর বক্তব্যের প্রতিবাদ পলাশ শিল্পাঞ্চল সরকারি কলেজ শিক্ষক ও কর্মচারিদের বিক্ষোভ বাস্তবময় জীবনের বাস্তবতা…অনামিকা চৌধুরী রু লাকসামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন : প্রায় ৭লাখ টাকার ক্ষতি মুরাদনগরে সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ের অভ্যন্তরীন প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু আমাদের জাতিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর সুযোগ করে দিয়েছে দীঘিনালায় জেলেদের মাঝে ছাগল বিতরণ গোমস্তাপুরে চাঞ্চল্যকর কুলুলেস ‍‍`মেহেরুল‍‍` হত্যা মামলার আসামি আটক তরুন উদ্যোক্তা নাসিমা জাহান বিনতী’র গ্লোবাল ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড অর্জন পলাশে চাচীর সাথে পরকিয়া করতে গিয়ে প্রেমিকের হাতের কব্জি কর্তন
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

বিয়ে বাড়িতে গেট-স্টেজ না দেওয়ায় সংঘর্ষে বরসহ আহত ১৫

Muktir Lorai / ১৭৭ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২০

ছাগলনাইয়া প্রতিনিধিঃ
ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলায় বিয়ের আসরে বর ও কনে পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষে বরসহ উভয়পক্ষের ১৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) পৌর শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের আবুল কালাম আজাদের মেয়ে সাহেদা আক্তার রিয়ার সঙ্গে দাগনভূঁঞা উপজেলার পূর্ব জয় নারায়ণ গ্রামের সার্জেন্ট অব. শাহাবুদ্দিনের ছেলে ইফতেখার উদ্দিনের (৩০) বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান চলাকালে গেট এবং স্টেজ না দেওয়াকে কেন্দ্র করে উভয়পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।
এ নিয়ে বরপক্ষের লোকজন প্রথমে চেয়ার টেবিল, গ্লাস, কাচের বোতল ও প্লেট ভাঙচুর করলে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়।
আহতরা হলেন- বর ইফতেখার উদ্দিন, তার বাবা সার্জেন্ট (অব.) শাহাবুদ্দিন, মা রহিমা খাতুন, তার বোন উম্মে সালমা, উম্মে আসমা, ভগ্নীপতি কাজী আব্দুর রহিম, ডাক্তার জিয়া উদ্দিন, বোনের শ্বশুর ওয়ালী উল্যাহ, বড় ভাই সালাউদ্দিন, ভাগ্নে কাজি আব্দুল মজিদ, কনের মামা আবুল কালাম, খালাতো ভাই আনোয়ার হোসেন ও মামা মানিকসহ প্রায় ১৫ জন।
স্থানীয়রা আহতদের ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ জানান, বড় ধরনের সংঘাত এড়াতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »