বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

সরাইলে ও একদিনে একজনের শরীরে দুইবার টিকা পুশ!

Muktir Lorai / ১৮৭ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় শনিবার, ৭ আগস্ট, ২০২১

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার সৈয়দটুলা গ্রামের এক মহিলাকে একই দিনে দুইবার টিকা প্রদানের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার সৈয়দটুলা গ্রামের মুসলিম খানের স্ত্রী রোজিনা বেগম (৩৮)

শনিবার (৭ আগস্ট) সরাইল অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ১ং বুথে এ ঘটনা ঘটে।
এ ব্যপারে ভুক্তভোগী রোজিনা বেগমের স্বামী মুসলিম মিয়া বলেন, সরাইল অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় গণটিকাদান কেন্দ্রে করোনা ভাইরাসের টিকা দিতে যায়। আমার স্ত্রী রোজিনা বেগম সকাল থেকেই লাইনে দাড়িয়ে অপেক্ষা করতে থাকে। দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাড়িয়ে আইডি কার্ড নিয়ে ১নং বুথে গিয়ে করোনার টিকা দিয়ে বের হয়ে আসে। কিন্তু ভুলে আইডি কার্ড কক্ষের ভিতরে ফেলে আসায় কিছুক্ষন পর আইডি কার্ড আনতে আমার স্ত্রী ফের ১নং বুথে যায়। সেখানে কর্তব্যরত স্বাস্থ্যকর্মী আমার স্ত্রীকে ফের করোনা ভাইরাসের টিকা দেন।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি আমি টিকা কেন্দ্রে উপস্থিত এক মেম্বারকে জানিয়েছি। মেম্বার বলেছেন এতে কোনো সমস্যা নেই। পরবর্তীতে মুঠোফোনে আমি বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নোমান মিয়াকে অবগত করেছি।
মুসলিম মিয়া ক্ষোভের সহিত বলেন, একই দিনে পর পর ২ বার আমার স্ত্রীকে করোনা ভাইরাসের টিকা দেওয়ার কারনে যদি আমার স্ত্রী মারা গেলে তার দায় কে নেবে ?

এ ব্যপারে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা চিকিৎসক নোমান মিয়া বলেন, ১ং বুথে কর্তব্যরত কর্মীর নিকট থেকে আমি ঘটনাটির খোঁজখবর নিয়েছি। রোজিনা বেগম প্রথম টিকা দিয়ে চলে গিয়ে পরবর্তীতে আইডি কার্ড নেওয়ার জন্য ফের বুথে প্রবেশ করে টিকাদানের জন্য নির্ধারিত আসনে বসেন। টিকা গ্রহনের বিষয়টি রোজিনা বেগম না বলায় নতুন লোক মনে করে ফের টিকা দেওয়া হয়েছে।
পর পর দুই ডোজ টিকা দিলেও কাজ করবে একটা । অন্য ডোজ টিকার কোনো কার্যকারিতা থাকবে না। এতে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »