শিরোনাম
বরগুনার ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটি গঠন পঞ্চগড়ে সারের জন্য দীর্ঘ লাইন, ফিরে যাচ্ছেন অনেকেই বাগেরহাটে সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ কর্তৃক জাতীয় শোক দিবস পালিত বোদায় ইউএনওর ফোন নম্বর ক্লোন করে প্রতারণার চেষ্টা ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত রূপসায় শ্রমীক নেতা আবুল হোসেনের স্বরণসভা ও দোয়া অনুষ্টিত বরগুনায় ছাত্রলীগের উপর পুলিশের বেধড়ক মারধর এর প্রতিবাদে আমতলীতে বিক্ষোভ বরগুনায় ছাত্রলীগকে পেটানো পুলিশ কর্মকর্তাকে ডিআইজি কার্যালয়ে সংযুক্ত টাঙ্গাইলে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে সিএনজির ধাক্কায় দুজন নিহত কুমিল্লায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে ৭ রাইস মিলকে জরিমানা
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

সরাইলে মুন্সিগঞ্জ জেলা ​নির্বাচন কর্মকর্তার অর্থায়নে ভিক্ষুকদের দুপুরের খাবার

Muktir Lorai / ২০৪ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় রবিবার, ৩০ জানুয়ারি, ২০২২

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে মুন্সিগঞ্জ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার অর্থায়নে ভিক্ষুকদের দুপুরের খাবার খাওয়ালেন গরিবের বন্ধু যুব ফাউন্ডেশন’।

সরাইল ও নাসিরনগর উপজেলার ভ্রাম্যমাণ অনেক ভিক্ষুকদের ‘মানবতার অন্ন’ কর্মসূচীর ব্যানারে দুপুরের খাবার খাওয়ালেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘গরিবের বন্ধু যুব ফাউন্ডেশন’।

রোববার দুপুরে উপজেলার অরুয়াইল বিএডিসি’র মাঠে শতাধিক অসহায় ভিক্ষুকদের রান্না করা দুপুরের খাবার খাওয়ানো হয়। খাবার মেনুতে ছিল গরুর মাংস, দই ও ভাত।

খাবার খেতে আসা ভিক্ষুক রহিমা বেগম বলেন,আমাদের কখনই কেউ দাওয়াত দেয়না। কোনও অনুষ্ঠানে গেলেও উল্টো তাড়িয়ে দেয়। ঝুটা খাবার খেতে দেয়। আর এখানে মনসুর ভাই আমাদেরকে প্রতি সপ্তাহে দাওয়াত করে খাওয়ান। যারা আমাদেরকে পেট ভরে খাওয়ান তাদের জন্য দুহাত তুলে আল্লাহ’র দরবারে দোয়া করি।

সংগঠনের চেয়ারম্যান এম. মনসুর আলী বলেন, ভিক্ষুকরা ধনীর বাড়িতে বিয়ে অথবা অন্য কোনো অনুষ্ঠানে দাওয়াত না পেলেও এক মুঠো খাবারের জন্য ছুটে যান ক্ষুধার জ্বালায়। অনেক সময় তাদের কপালে জোটে ঝুটা খাবার, কখনও শুকনা ভাত আবার তরকারি দেওয়া হলেও তাতে থাকে না মাংস। এ সমস্ত ভিক্ষুকদের আমরা দাওয়াত করে পেট ভরে মাংস দিয়ে খাওয়াই।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »