বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

বাঘায়ব কৃষকের জমির পাট কেটে নিলেন এক ইউপি সদস্যের ছেলের

Muktir Lorai / ৮৬ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১

রাজশাহী ব‍্যুরোঃ রাজশাহীর বাঘায় এক ইউপি সদস্যের ছেলের বিরুদ্ধে জোর পুর্বক ৯৫ শতাংশ জমির পাট কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নের খান পুর এলাকায়। এ ঘটনায় গত বুধবার (১১- ০৮-২১) ভুক্তভোগী আব্দুর রহিম মোল্লা বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নের খানপুর গ্রামের আব্দুর রহিম মোল্লা তার নিজ নামীয় ৫০ শতাংশ ও কট বন্দক নেয়া ৪৫ শতাংশ জমিতে পাট চাষ করেন।

কিন্তু ওই ইউনিয়নের ০৭ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মৃত নজরুল সরকারের ছেলে রাশেল সরকারের নেতৃত্বে আশসাব সরকারের ছেলে রাকিব, মৃত হশেম সরকারের ছেলে আশসাব সরকার, নওশেন আলীর ছেলে জাহেদুলসহ অজ্ঞাত আরো অনেকে জোর পুর্বক ঐজমির পাট কেটে নেয়। ভুক্তভোগী আব্দুর রহিম বলেন, খবর পেয়ে আমি সেখানে গিয়ে নিষেধ করলে ইউপি সদস্য রাসেল আমাকে অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ করে এবং আমাকে কুপিয়ে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। আমি প্রাণের ভয়ে সেখান থেকে পালিয়ে জীবন রক্ষা করি।
এ ব্যপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য রাসেল সরকার অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ ও কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন, আমি ওই জমি ক্রয় করার জন্য বায়না দিয়েছি মর্মে আমি পাট কেটে নিয়েছি। জমির বায়না নামার কোন লিখিত প্রমাণ আছে কি না জানতে চাইলে সে এই প্রতিবেদককে বলে তার কাছে কোন প্রামাণ নেই।

এ ব্যাপারে গড়গড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলামের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, জোরপূর্বক পাট কেটে নেওয়ার ঘটনা শুনেছি। আমার ইউপি সদস্য রাসেল মেম্বার ও আব্দুর রহিম এর জমি ক্রয়-বিক্রয়ের টাকা নিয়ে এসমস্যা হয়েছে। আমরা বসে শালিস মিমাংশা করার কথা রয়েছে।

এ বিষয়ে বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ওই এলাকায় দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসারকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »