বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

আমতলীতে টিকা নিতে আসা কেউই মানছেনা স্বাস্থ্যবিধি

Muktir Lorai / ৯৬ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১

সাইফুল্লাহ নাসির, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ সারাদেশে মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমন দ্রæত ছড়িয়ে পড়ায় আক্রান্ত ও নিহতের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় বরগুনার আমতলীতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে আজ (মঙ্গলবার) পুনঃরায় টিকা নেওয়া শুরু হয়েছে। প্রথম দিনেই উপচে পড়া ভীড় লক্ষ করা গেছে। টিকা গ্রহনে মানা হয়নি স্বাস্থ্যবিধি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, আজ (মঙ্গলবার) থেকে পুনঃরায় আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মহামারী করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আজ প্রথম দিনেই সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উপজেলার ৩০২ জন পুরুষ ও মহিলা টিকা নিয়েছেন। ওই হাসপাতালে একদিনে এটাই সর্বোচ্চ।

আজ (মঙ্গলবার) বেলা ১১টার দিকে সরেজমিনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেছে, শত-শত নারী ও পুরুষ টিকার রেজিষ্টেশন কার্ড হাতে নিয়ে টিকা নেওয়ার জন্য হাসপাতালের বারান্দায় অপেক্ষা করছেন। স্বাস্থ্যবিধি না মেনে একেক জন একেকজনের শরীরের সাথে মিশে টিকা নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন। কে কার আগে টিকা নিবে তার চলছে প্রতিযোগিতা।

কথা হয় টিকা নিতে আসা পৌর শহরের এক কাপড় ব্যবসায়ী হরি কুন্ডুর সাথে। তিনি জানায়, দেশে করোনা আক্রান্ত ও নিহতের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় স্ত্রীকে নিয়ে টিকা নিতে হাসপাতালে এসেছি। কিন্তু এখানে টিকা নিতে আসা কেহই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। কে কার আগে টিকা নিবে সেই প্রতিযোগিতায় সকলেই ব্যস্ত।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবদুল মুনয়েম সাদ বলেন, আজ থেকে আবারও হাসপাতাল থেকে করোনা টিকা নেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে উপজেলার ৩০২ জন পুরুষ মহিলা টিকা নিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগ ঝুকি নিয়ে কাজ করছে। তারমধ্যে এত লোক এক জায়গায় জড়ো হলে স্বাস্থ্যবিধিতো কিছুটা বিঘিœত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তারপরেও আমরা টিকা নিতে আসা ব্যক্তিদের মুখে মাস্ক পড়া ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধৈর্য্যধারণ করে টিকা নিতে নির্দেশনা দিয়েছি।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »