• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১২:৪৬ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
শিরোনাম
ধোপাজান চলতি নদীতে ৮টি নৌকা আটক, ২ লক্ষ টাকা জরিমানা পাচার বাণিজ্যে মতানৈক্যের জেরে সীমান্তে অপহৃত নাবালক ৬ চিকিৎসক নিয়ে ধুঁকে ধুঁকে চলছে বরগুনা সরকারি হাসপাতাল সামাজিক দূরত্ব ভুলে রাসিক মেয়র লিটনের খাদ্য সামগ্রী বিতরন সলঙ্গায় ১০কেজি গাঁজাসহ মাদক ব‍্যবসায়ী আটক বরুড়ায় ১৫০ অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন এসকিউ গ্রুপের শফিউদ্দিন শামীম বাবার মৃত্যুর একদিন পর মাকেও হারালেন সহকারী এটর্নি জেনারেল এড. ফারুক সাতক্ষীরা শহরের বাগানবাড়িতে ভূমিহীনদের পুর্নবাসনের দাবিতে উঠান বৈঠক আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মুরাদনগরে দিনব্যাপী ডিউটি অফিসারের ভূমিকায় এএসপি
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

উল্লাপাড়ায় দেবরের পুরুষাঙ্গ কেটে নিলো ভাবী

news / ৩৬৬ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় সোমবার, ২৮ জুন, ২০২১

মোঃ শাহাদত হোসেন, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলাধীন কয়ড়া ইউনিয়নের রতনদিয়ার দিয়ারপাড়া গ্রামে দেবর আকরাম হোসেনের পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছে ভাবী মমতা খাতুন।
রোববার (২৭ জুন) গভীর রাতে উপজেলার কয়ড়ার রতনদিয়া দায়ারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত আকরাম হোসেন (২০) কে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অভিযুক্ত মমতা খাতুন ওই গ্রামের নবির হোসেনের স্ত্রী।
আহতের পিতা আব্দুল কাদের বলেন, রোববার (২৭ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোবাইলে সারানোর কথা বলে ছোট দেবর আকরাম হোসেনকে ঘরে ডেকে নিয়ে যায় মমতা খাতুন। এ সময় কাচি দিয়ে তার পুরুষাঙ্গ কর্তন করে, রক্তক্ষরণে আহত দেবর আকরাম হোসেনের আত্মচিৎকারে তাকে তাৎক্ষনিকভাবে উল্লাপাড়া ২০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থার বেগতিক দেখে তাকে বগুড়া জিয়া মেডিকেল হাসপাতালে স্থানান্তর করে। ওই রাতেই তাকে বগুড়া জিয়া মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে কি কারণে পুরুষাঙ্গ কর্তন করা হলে তার প্রকৃত কারণ এখনও জানা যায়নি, এ ঘটনায় উল্লাপাড়া মডেল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
তিনি আরও বলেন, এর আগেও গত ২৭ মার্চ একই গ্রামের প্রতিবেশী হায়দার আলীর পুত্র নোমানের পুরুষাঙ্গ কর্তন করেছিল মমতা খাতুন। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মিমাংসরা করা হয়েছিল,
উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক কুমার দাস এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, দেবরের পুরুষ লিঙ্গ কর্তনের কথা শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ভিকটিম হাসপাতালে ভর্তি থাকায় কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা সুনির্দিষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এ ঘটনা ঘটতে পারে। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ থানায় দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে,
ওসি আরও বলেন, এর আগেও ওই নারী আরও একজন যুবকের পুরুষ কর্তন করেছিল বলে শুনেছি, ওই সময়েও বিষয়টি পুলিশকে না জানিয়ে স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করা হয়।


এই বিভাগের আরো সংবাদ