ঢাকা ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কক্সবাজারে একহাজার শিশুর খৎনা অনুষ্ঠিত

আজিজ উদ্দিন, কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ
মুসলিম ধর্মের রীতি অনুযায়ী পুরুষ মানুষকে ছোটকালে খৎনা করানো হয়। ৬-৭ বছরের শিশুদের প্রত্যেক মা বাবা খৎনা করে থাকে।

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার সময় কক্সবাজার পৌরসভাস্থ ১নং ওয়ার্ডের সমিতি পাড়া উপকূলিয় বিদ্যালয়ে বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও রাজনীতিবিদ আতিক উল্লাহ কোম্পানীর উদ্যোগে দাতা সংস্থার সহযোগীতায় গরীব অসহায় হতদরিদ্র এক হাজার শিশুদের খৎনার আয়োজন করেন।

শহরতলী ১নং ওয়ার্ডের এক হাজার জনের খৎনা অনুষ্ঠান শেষে কক্সবাজার ঈদগাঁও উপজেলাতে দাতা সংস্থার সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত হবে।

খৎনা অনুষ্ঠান চলমান করে গণমাধ্যমকর্মীদের আতিক উল্লাহ কোম্পানী জানান, আমাদের এলাকাটা জনবসতিপূর্ণ। ১নং ওয়ার্ডে প্রায় বিশ হাজার পরিবার বাস করে। বেশিরভাগ পরিবার অসহায় ও হতদরিদ্র গরিব। দিনে এনে দিনে খেতে অনেক পরিবার হিমশিম খাচ্ছে। সে পরিবার গুলোর আর্থিক অবস্থা চিন্তা করে দাতা সংস্থার সাথে যোগাযোগ করে, এক হাজার শিশুর খৎনার ব্যবস্থা করেছি।

তিনি আরো বলেন, আমি সবসময় মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করি। কারণ, পৃথিবীতে সবকিছু ঊর্দ্ধে মানবসেবা ও মানবতা। তাই আমি সর্বদা মানুষের পাশে থেকে নিজেকে মানবপ্রেমী হিসেবে সমাজের কাছে তুলে ধরেছি।

দাতা সংস্থার সহযোগীতায় চালু হওয়া খৎনা অনুষ্ঠান আগামী সোমবার পর্যন্ত চলমান থাকবে।
সেসাথে খৎনায় অংশ নেওয়া শিশুদের ঔষুধপত্র দেওয়া হচ্ছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কক্সবাজারে একহাজার শিশুর খৎনা অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় ০৬:৩২:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০২২

আজিজ উদ্দিন, কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ
মুসলিম ধর্মের রীতি অনুযায়ী পুরুষ মানুষকে ছোটকালে খৎনা করানো হয়। ৬-৭ বছরের শিশুদের প্রত্যেক মা বাবা খৎনা করে থাকে।

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার সময় কক্সবাজার পৌরসভাস্থ ১নং ওয়ার্ডের সমিতি পাড়া উপকূলিয় বিদ্যালয়ে বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও রাজনীতিবিদ আতিক উল্লাহ কোম্পানীর উদ্যোগে দাতা সংস্থার সহযোগীতায় গরীব অসহায় হতদরিদ্র এক হাজার শিশুদের খৎনার আয়োজন করেন।

শহরতলী ১নং ওয়ার্ডের এক হাজার জনের খৎনা অনুষ্ঠান শেষে কক্সবাজার ঈদগাঁও উপজেলাতে দাতা সংস্থার সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত হবে।

খৎনা অনুষ্ঠান চলমান করে গণমাধ্যমকর্মীদের আতিক উল্লাহ কোম্পানী জানান, আমাদের এলাকাটা জনবসতিপূর্ণ। ১নং ওয়ার্ডে প্রায় বিশ হাজার পরিবার বাস করে। বেশিরভাগ পরিবার অসহায় ও হতদরিদ্র গরিব। দিনে এনে দিনে খেতে অনেক পরিবার হিমশিম খাচ্ছে। সে পরিবার গুলোর আর্থিক অবস্থা চিন্তা করে দাতা সংস্থার সাথে যোগাযোগ করে, এক হাজার শিশুর খৎনার ব্যবস্থা করেছি।

তিনি আরো বলেন, আমি সবসময় মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করি। কারণ, পৃথিবীতে সবকিছু ঊর্দ্ধে মানবসেবা ও মানবতা। তাই আমি সর্বদা মানুষের পাশে থেকে নিজেকে মানবপ্রেমী হিসেবে সমাজের কাছে তুলে ধরেছি।

দাতা সংস্থার সহযোগীতায় চালু হওয়া খৎনা অনুষ্ঠান আগামী সোমবার পর্যন্ত চলমান থাকবে।
সেসাথে খৎনায় অংশ নেওয়া শিশুদের ঔষুধপত্র দেওয়া হচ্ছে।