ঢাকা ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কালীগঞ্জে বিএনপি-ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, বোমা বিস্ফোরন, ভাংচুর

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মহান শহীদ দিবসে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে বিএনপি ও ছাত্রলীগের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় বোমা বিষ্ফোরন ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা ইরফান রাজা রুকুর অবস্থা গুরুতর। এখনও থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। শহরে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে সরকারি মাহতাব উদ্দিন কলেজের পিছনে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির পক্ষ থেকে শহরের সরকারি মাহতাব উদ্দিন কলেজের শহীদ মিনারে ফুল দিতে যায়। এ সময় কলেজে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও শ্লোগান দিতে থাকে। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টির এক পর্যায়ে ইট পাটকেল ছোড়া শুরু হয়। দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় আহতের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ জানান, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বিএনপির নেতাকর্মিরা শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যান। ফেরার পথে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এছাড়াও বিএনপি নেতাকর্মীদের লক্ষ্য করে বোমা ছুঁড়ে মারে। এ ঘটনায় তাদের কমপক্ষে ৫ জন নেতাকর্মী আহত হন।
কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল আলম বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে যাওয়ার পথে ছাত্রলীগ কর্মী রুকুকে একা পেয়ে এলাপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। তিনি বলেন, ভাষা শহীদদের স্মরনের দিনে পরিবেশ শান্ত রাখার দায়িত্ব সকলের মধ্যে থাকা উচিৎ। কিন্ত কোন কারন ছাড়াই বিএনপি’র নেতাকর্মিরা ছাত্রলীগ নেতা রুকুকে জখম করেছে। সে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসাধীন। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।
এরপর রুকুর আহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে শহরে ছাত্রলীগ ও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মিরা মিছিল বের করে। এ সময় মিছিলকারীরা বিএনপি নেতা খালেদ সাইফুল্লাহ মিলনের পূর্বাশা পরিবহনের কাউন্টারের আসবাবপত্র ভাংচুর করে।
কালীগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রহিম মোল্যা জানান, শহরে উভয় দল মিছিল নিয়ে ফুল দিতে যায়। কিন্ত ছাত্রলীগের এক নেতাকে পিটিয়ে জখম করার পর শহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিবেশ অশান্তকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ তৎপর ও শহরে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কালীগঞ্জে বিএনপি-ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, বোমা বিস্ফোরন, ভাংচুর

আপডেট সময় ১১:০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মহান শহীদ দিবসে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে বিএনপি ও ছাত্রলীগের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় বোমা বিষ্ফোরন ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা ইরফান রাজা রুকুর অবস্থা গুরুতর। এখনও থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। শহরে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে সরকারি মাহতাব উদ্দিন কলেজের পিছনে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির পক্ষ থেকে শহরের সরকারি মাহতাব উদ্দিন কলেজের শহীদ মিনারে ফুল দিতে যায়। এ সময় কলেজে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও শ্লোগান দিতে থাকে। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টির এক পর্যায়ে ইট পাটকেল ছোড়া শুরু হয়। দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় আহতের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ জানান, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বিএনপির নেতাকর্মিরা শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যান। ফেরার পথে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এছাড়াও বিএনপি নেতাকর্মীদের লক্ষ্য করে বোমা ছুঁড়ে মারে। এ ঘটনায় তাদের কমপক্ষে ৫ জন নেতাকর্মী আহত হন।
কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল আলম বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে যাওয়ার পথে ছাত্রলীগ কর্মী রুকুকে একা পেয়ে এলাপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। তিনি বলেন, ভাষা শহীদদের স্মরনের দিনে পরিবেশ শান্ত রাখার দায়িত্ব সকলের মধ্যে থাকা উচিৎ। কিন্ত কোন কারন ছাড়াই বিএনপি’র নেতাকর্মিরা ছাত্রলীগ নেতা রুকুকে জখম করেছে। সে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসাধীন। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।
এরপর রুকুর আহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে শহরে ছাত্রলীগ ও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মিরা মিছিল বের করে। এ সময় মিছিলকারীরা বিএনপি নেতা খালেদ সাইফুল্লাহ মিলনের পূর্বাশা পরিবহনের কাউন্টারের আসবাবপত্র ভাংচুর করে।
কালীগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রহিম মোল্যা জানান, শহরে উভয় দল মিছিল নিয়ে ফুল দিতে যায়। কিন্ত ছাত্রলীগের এক নেতাকে পিটিয়ে জখম করার পর শহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিবেশ অশান্তকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ তৎপর ও শহরে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।