ঢাকা ০৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুটুমবাড়ি বিরিয়ানি হাউজের মোরগ পোলাও ভেতরে স্টাপলার পিন!

শনিবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ইফতার করার জন্য কুমিল্লা নগরীর কুটুমবাড়ি বিরিয়ানি হাউজ থেকে ৫ পেকেট মোরগ পোলাও আনা হয়। কুমিল্লার বিপনি বিতান ইস্টার্ন ইয়াকুব প্লাজার ব্যাবসায়ী রঙ বেরঙ দোকানের সত্ত্বাধিকারী জিল্লুর রহমান রাশেদ নিজের জন্য এবং দোকানের সহকর্মীদের জন্য কুমিল্লা পুলিশ লাইন মাঠের বিপরীতে এস এ, বারী মার্কেটে অবস্থিত কুটুমবাড়িতে রেষ্টুরেন্ট থেকে ইফতারির জন্য মোরগ পোলাও নিয়ে আসলে তিনি একটি প্যাকেট খুলে দেখেন সারিবদ্ধ ভাবে স্টাপলার মেশিনের ভেতরের অনেকগুলো পিন। না দেখে ভুলক্রমে তা দিয়ে ইফতার করে ফেললে কন্ঠনালীতে পিন আটকিয়ে যেকোন বড় রকমের দূর্ঘটনা ঘটতে পারতো।
ইস্টার্ন প্লাজার দোকানদার জিল্লুর রহমান জানান, তিনি যখন ইফতার করার সময় খাওয়া গুরু করেন তখন খাওয়া অর্ধেক শেষ হওয়ার পর তিনি দেখেন উনার প্লেট এর মধ্যে মোরগ পোলার ভিতর একটি আস্ত স্টাপলার পিনের লাইন ল।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাক্তার মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী জানান, স্টাপলারের পিন মানুষের কন্ঠনালীতে প্রবেশ করলে অতিরিক্ত ব্লিডিং হয়ে বড় রকমের বিপদ ঘটতে পারে।

কুমিল্লা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলাম জানান আমরা এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। আভিযোগ পেলে আর অভিযোগের আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুটুমবাড়ি বিরিয়ানি হাউজের ম্যানেজার শামীম আহমেদ জানান, আমাদের অসচেতনতায় এমন কাজটি হয়েছে এবং সে তার ভুল স্বীকার করেন। এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কুটুমবাড়ি বিরিয়ানি হাউজের মোরগ পোলাও ভেতরে স্টাপলার পিন!

আপডেট সময় ০৭:৫০:২৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ এপ্রিল ২০২৩

শনিবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ইফতার করার জন্য কুমিল্লা নগরীর কুটুমবাড়ি বিরিয়ানি হাউজ থেকে ৫ পেকেট মোরগ পোলাও আনা হয়। কুমিল্লার বিপনি বিতান ইস্টার্ন ইয়াকুব প্লাজার ব্যাবসায়ী রঙ বেরঙ দোকানের সত্ত্বাধিকারী জিল্লুর রহমান রাশেদ নিজের জন্য এবং দোকানের সহকর্মীদের জন্য কুমিল্লা পুলিশ লাইন মাঠের বিপরীতে এস এ, বারী মার্কেটে অবস্থিত কুটুমবাড়িতে রেষ্টুরেন্ট থেকে ইফতারির জন্য মোরগ পোলাও নিয়ে আসলে তিনি একটি প্যাকেট খুলে দেখেন সারিবদ্ধ ভাবে স্টাপলার মেশিনের ভেতরের অনেকগুলো পিন। না দেখে ভুলক্রমে তা দিয়ে ইফতার করে ফেললে কন্ঠনালীতে পিন আটকিয়ে যেকোন বড় রকমের দূর্ঘটনা ঘটতে পারতো।
ইস্টার্ন প্লাজার দোকানদার জিল্লুর রহমান জানান, তিনি যখন ইফতার করার সময় খাওয়া গুরু করেন তখন খাওয়া অর্ধেক শেষ হওয়ার পর তিনি দেখেন উনার প্লেট এর মধ্যে মোরগ পোলার ভিতর একটি আস্ত স্টাপলার পিনের লাইন ল।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাক্তার মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী জানান, স্টাপলারের পিন মানুষের কন্ঠনালীতে প্রবেশ করলে অতিরিক্ত ব্লিডিং হয়ে বড় রকমের বিপদ ঘটতে পারে।

কুমিল্লা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলাম জানান আমরা এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। আভিযোগ পেলে আর অভিযোগের আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুটুমবাড়ি বিরিয়ানি হাউজের ম্যানেজার শামীম আহমেদ জানান, আমাদের অসচেতনতায় এমন কাজটি হয়েছে এবং সে তার ভুল স্বীকার করেন। এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।