বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

জামালপুরে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধিতে ২০ হাজার মানুষের দুর্ভোগ

Muktir Lorai / ৩১ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় শনিবার, ১৮ জুন, ২০২২

জামালপুর সংবাদদাতাঃ উজানের পাহাড়ি ঢল ও ভারি বর্ষণে জামালপুরে যমুনাসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি অব্যাহতভাবে বাড়ছে। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন প্রায় ২০ হাজার মানুষ।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে ৬৪ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপদসীমার ১১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শুক্রবার (১৭ জুন) সরেজমিন, যমুনার পানি বেড়ে গিয়ে ইসলামপুর উপজেলার কুলকান্দি, বেলগাছা, পাথর্শী, নোয়ারপাড়া ও সাপধরি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলের পাট, সবজিসহ বিভিন্ন ফসল ডুবে গেছে।

শুক্রবার (১৭ জুন) ভোরে পাহাড়ি ঢলে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বেড়ে দেওয়ানগঞ্জ-খোলাবাড়ি সড়কের মণ্ডল বাজার এলাকায় সড়কের ২০ মিটার ভেঙে গেছে। এতে উপজেলা সদরের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। জরুরি প্রয়োজনে ঝুঁকি নিয়ে ডিঙ্গি নৌকায় পারাপার হচ্ছে মানুষ।

স্থানীয়রা জানান, দেওয়ানগঞ্জ-খোলাবাড়ী সড়ক দিয়ে খোলাবাড়ী, চরমাগুরিয়া হাট, ফারাজীপাড়া, চর ডাকাতিয়া, কাজলা, মণ্ডলপাড়া ও খোলাবাড়ী নৌথানাসহ আশপাশের অন্তত ২০ হাজার মানুষের যাতায়াত বন্ধ হয়েছে। এছাড়াও গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ির উপজেলার চলাঞ্চলের বেশির ভাগ মানুষ এই সড়ক ব্যবহার করেন।

তাদের অভিযোগ, সড়ক ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লেও স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড বা এলজিইডি কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

এ ব্যাপারে জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবু সাঈদ বলেন, ভাঙনের এমন খবর শুনেছি। পাওয়া খবর অনুযায়ী ওই সড়ক এলজিইডি’র। দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »