ঢাকা ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে বিষাক্ত এ্যালকোহল পানে ৩ জনের মৃত্যু

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে বিষাক্ত এ্যালকোহল পান করে তিনজন মারা গেছে। নিহতদের মধ্যে কালীগঞ্জ শহরের শ্রীলক্ষী সিনেমা হলের সামনে নদীপাড়ার হারুনর রশিদের ছেলে জাহাঙ্গীর (৩৫), একই এলাকার অনিল কুমারের ছেলে বিপুল কুমার (৪৫) ও শ্রীলক্ষী সিনেমা হলের পিছনে ঢাকালে পাড়ার খোকন মিয়ার ছেলে রাজিব হোসেন (২৫)। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভির রাতে তারা মারা যান। এদের মধ্যে
নিহত বিপুল কুমারের ভাই নির্মল কুমার জানান, বৃহস্পতিবার গভির রাতে তার প্রেসার লো হয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এসময় কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকরা ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে রেফার করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়।
শহরের ঢাকালে পাড়ার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক যুবক জানান, বৃহস্পতিবার রাতে নিহতরা সবাই কালীগঞ্জ মেইন বাস্টান্ডের রেজা হোমিও হল থেকে এ্যালকোহল পান করে। এরপর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।
কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক শিবলী খাতুন জানান, রাতে যখন রোগী এসেছিল তখন ডাক্তার তানভীর হোসেন দ্বায়িত্বে ছিলেন। তবে রেকর্ড বইয়ে রাজিব হোসেন এ্যালকোহল খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় যশোর রেফার করা হয়।
কালীগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রহিম মোল্লা মারা যাওয়া ব্যক্তিরা সবাই এ্যালকোহল পান করেছিল বলে নিশ্চিত করেন। এ্যালকোহল পানের পর তারা সবাই বিষক্রিয়া অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। পরিবারের সদস্যরা তাদের হাাসপাতালে নিলে মারা যায়।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ঝিনাইদহে বিষাক্ত এ্যালকোহল পানে ৩ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০৭:৫০:২২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে বিষাক্ত এ্যালকোহল পান করে তিনজন মারা গেছে। নিহতদের মধ্যে কালীগঞ্জ শহরের শ্রীলক্ষী সিনেমা হলের সামনে নদীপাড়ার হারুনর রশিদের ছেলে জাহাঙ্গীর (৩৫), একই এলাকার অনিল কুমারের ছেলে বিপুল কুমার (৪৫) ও শ্রীলক্ষী সিনেমা হলের পিছনে ঢাকালে পাড়ার খোকন মিয়ার ছেলে রাজিব হোসেন (২৫)। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভির রাতে তারা মারা যান। এদের মধ্যে
নিহত বিপুল কুমারের ভাই নির্মল কুমার জানান, বৃহস্পতিবার গভির রাতে তার প্রেসার লো হয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এসময় কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকরা ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে রেফার করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়।
শহরের ঢাকালে পাড়ার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক যুবক জানান, বৃহস্পতিবার রাতে নিহতরা সবাই কালীগঞ্জ মেইন বাস্টান্ডের রেজা হোমিও হল থেকে এ্যালকোহল পান করে। এরপর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।
কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক শিবলী খাতুন জানান, রাতে যখন রোগী এসেছিল তখন ডাক্তার তানভীর হোসেন দ্বায়িত্বে ছিলেন। তবে রেকর্ড বইয়ে রাজিব হোসেন এ্যালকোহল খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় যশোর রেফার করা হয়।
কালীগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রহিম মোল্লা মারা যাওয়া ব্যক্তিরা সবাই এ্যালকোহল পান করেছিল বলে নিশ্চিত করেন। এ্যালকোহল পানের পর তারা সবাই বিষক্রিয়া অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। পরিবারের সদস্যরা তাদের হাাসপাতালে নিলে মারা যায়।