ঢাকা ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ স্থাপনের দাবী

মোঃ ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও

পুনরায় বিমানবন্দর চালু ও মেডিক্যাল কলেজ স্থাপনের দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে দীর্ঘ এক কিলোমিটার পথে মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে।

বুধবার (১২ জুন) সকালে জেলাবাসির উদ্যোগে শহরের চৌরাস্তায় এ মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করা হয়।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, ঢাকা থেকে এ জেলার দুরত্ব প্রায় পাঁচশ কিলোমিটার। বর্তমানে যানজোটের কারনে বাসে যেতে সময় লাগে প্রায় ১৩ ঘন্টা। এতে মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হয়। অন্যদিকে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ বিমানবন্দরটির জায়গা সংরক্ষনে প্রাচীর নির্মাণ ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে কাজ শুরু করেছে।

এ এলাকার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবির প্রেক্ষিতে এখন বিমানবন্দরটি চালু করা জরুরি হয়ে পরেছে। আর এ বন্দরটি চালু হলে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ব্যপক ভুমিকা পালন করবে। সেই সাথে ভারত, নেপাল, ভুটানসহ বেশকয়েকটি দেশ ব্যবসা বাণিজ্যে ভুমিকা রাখবে। তৈরি হবে কর্মসংস্থান। উত্তরের এ জেলায় বিমান বন্দরটি চালু হয়ে আশপাশের কয়েকটি জেলার প্রায় ৪০ লাখ মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থায় সুফল পাবে।

এছাড়া বর্তমানে ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে প্রতিদিন প্রায় ৬-৭শ রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে। গড়ে ভর্তি থাকছে প্রায় চারশ রোগী তাই এ জেলায় একটি মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন করার বিষয়টি অনেক বেশি গুরুত্বপুর্ন।

রোগির চাপে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা হিমশিম খাচ্ছে। ফলে উপায় না পেয়ে সামান্য জটিলতা রোগীকে পাঠিয়ে দিচ্ছেন রংপুর কিংবা দিনাজপুরে। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন রোগি ও স্বজনরা।

বাস্তবতা বিবেচনায় মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন ও ঠাকুরগাঁও বিমানবন্দরটি পুনরায় চালু করায় এখন সময়ের দাবিতে পরিনত হয়ে পরেছে। আমরা চাই প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে দ্রুত এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহন করবেন সরকার।

মানববন্ধন কর্মসুচিতে জেলার রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষ একাত্বতা প্রকাশ করেন। আওয়াজ তুলেন বিমানবন্দর চালু ও মেডিক্যাল কলেজ স্থাপনের।

আপলোডকারীর তথ্য

নওগাঁ-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ কাজের নানান অনিয়মের অভিযোগ

ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ স্থাপনের দাবী

আপডেট সময় ০৯:৩৪:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

মোঃ ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও

পুনরায় বিমানবন্দর চালু ও মেডিক্যাল কলেজ স্থাপনের দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে দীর্ঘ এক কিলোমিটার পথে মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে।

বুধবার (১২ জুন) সকালে জেলাবাসির উদ্যোগে শহরের চৌরাস্তায় এ মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করা হয়।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, ঢাকা থেকে এ জেলার দুরত্ব প্রায় পাঁচশ কিলোমিটার। বর্তমানে যানজোটের কারনে বাসে যেতে সময় লাগে প্রায় ১৩ ঘন্টা। এতে মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হয়। অন্যদিকে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ বিমানবন্দরটির জায়গা সংরক্ষনে প্রাচীর নির্মাণ ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে কাজ শুরু করেছে।

এ এলাকার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবির প্রেক্ষিতে এখন বিমানবন্দরটি চালু করা জরুরি হয়ে পরেছে। আর এ বন্দরটি চালু হলে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ব্যপক ভুমিকা পালন করবে। সেই সাথে ভারত, নেপাল, ভুটানসহ বেশকয়েকটি দেশ ব্যবসা বাণিজ্যে ভুমিকা রাখবে। তৈরি হবে কর্মসংস্থান। উত্তরের এ জেলায় বিমান বন্দরটি চালু হয়ে আশপাশের কয়েকটি জেলার প্রায় ৪০ লাখ মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থায় সুফল পাবে।

এছাড়া বর্তমানে ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে প্রতিদিন প্রায় ৬-৭শ রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে। গড়ে ভর্তি থাকছে প্রায় চারশ রোগী তাই এ জেলায় একটি মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন করার বিষয়টি অনেক বেশি গুরুত্বপুর্ন।

রোগির চাপে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা হিমশিম খাচ্ছে। ফলে উপায় না পেয়ে সামান্য জটিলতা রোগীকে পাঠিয়ে দিচ্ছেন রংপুর কিংবা দিনাজপুরে। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন রোগি ও স্বজনরা।

বাস্তবতা বিবেচনায় মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন ও ঠাকুরগাঁও বিমানবন্দরটি পুনরায় চালু করায় এখন সময়ের দাবিতে পরিনত হয়ে পরেছে। আমরা চাই প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে দ্রুত এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহন করবেন সরকার।

মানববন্ধন কর্মসুচিতে জেলার রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষ একাত্বতা প্রকাশ করেন। আওয়াজ তুলেন বিমানবন্দর চালু ও মেডিক্যাল কলেজ স্থাপনের।