• শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৬:২১ পূর্বাহ্ন
  • Arabic Arabic Bengali Bengali English English
শিরোনাম
হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করেছে র‌্যাব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলমান ছুটি বাড়লো ৩১ আগষ্ট পর্যন্ত হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার নবীগঞ্জে বিধিনিষেধ অমান্য করায় জরিমানা পবায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ সরাইলে নমুনা দেয়ার আগেই ঢলে পড়লেন মৃত্যুর কোলে শনিবার থেকে নিবন্ধনকারীদের করোনার টিকা দেওয়া হবে রাজশাহী টিচার্স ট্রেনিং কলেজে পবায় কোভিড-এ ক্ষতিগ্রস্ত পল্লী উদ্যোক্তাদের মাঝে প্রণোদনা ঋণ বিতরণ উল্লাপাড়ায় স্বেচ্ছায় রাস্তা সংস্কার কঠোর লকডাউনে বাড়েনি সবজির দাম, সাধারণ মানুষর স্বস্তি ফিরলেও দুঃশ্চিন্তায় চাষীরা
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈদিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একদন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ

তথ্য প্রদানে নিষেধাজ্ঞা স্বাস্থ্য খাতের ব্যর্থতা ও অনিয়ম আড়ালের অপচেষ্টা

news / ৫৫ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় শুক্রবার, ৯ জুলাই, ২০২১

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃঃ স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক কর্মকান্ড এবং রোগ ও রোগীদের সম্পর্কে গণমাধ্যমে তথ্য প্রদানে নিষেধাজ্ঞায় গভীর উদ্বেগ এবং নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)।
বিএফইউজে সভাপতি এম আবদুল্লাহ ও মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন; ডিইউজে সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, ৮ জুলাই ২০২১ খ্রি. তারিখ ঢাকার সিভিল সার্জন ডাঃ আবু হোসেন মোঃ মঈনুল আহসান স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় ঢাকা জেলাধীন সরকারী হাসপাতালসমূহে রোগীর সেবা সম্পর্কীয় ও স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মকান্ডের উপর ইলেক্ট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ায় কোন প্রকার তথ্য আদান-প্রদান ও মন্তব্য না দিতে বলা হয়েছে। সিভিল সার্জনের এহেন নির্দেশনায় গণমাধ্যমকর্মীরা ক্ষুব্ধ ও বিস্মিত। এ ধরনের নির্দেশনা অবাধ তথ্য প্রবাহের পথে কেবল অন্তরায় নয়, এটি স্বাধীন সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে হস্তক্ষেপ এবং স্বেচ্ছাচারিতার বহিঃপ্রকাশ।
বিবৃতিতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ভয়াবহ রূপ নিয়ে সারাদেশে জনমনে এক আতংক অবস্থা বিরাজ করছে। একই সঙ্গে চিকিৎসা সেবা পাওয়া নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠাও সমভাবে বেড়ে চলেছে। এ পরিস্থিতিতে সম্মুখ সারির যোদ্ধা হিসেবে প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক্স ও অনলাইন মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়েই হাসপাতালগুলোর বিদ্যমান সক্ষমতা এবং স্বাস্থ্যসেবার নানা বিষয় তুলে ধরে সংকট মোকাবেলায় সরকারের নীতিনির্ধারকদের পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা করছে। অন্যদিকে সাধারণ জনগণকে সচেতন ও সাবধান করে তুলতে ভূমিকা রাখছে। পক্ষান্তরে মহামারীর শুরু থেকে স্বাস্থ্যখাতের একের পর এক অনিয়ম ও কেলেংকারীর চিত্র প্রকাশ পেতে থাকে। যার জের ধরে মহান জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্যরা ক্ষোভ ও উষ্মা প্রকাশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন। এ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যখাতের অনিয়ম, অপকর্ম ও ব্যর্থতা ঢেকে রাখতেই তথ্য প্রদানে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে বলে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ মনে করেন। তারা অবিলম্বে এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহরের দাবি জানান।


এই বিভাগের আরো সংবাদ