• শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২১ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
শিরোনাম
সিএমপির পাঁচলাইশ মডেল থানার অভিযানে ০২টি স্টিলের টিপছোরা সহ ০১ জন গ্রেফতার ভান্ডারিয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নয়নে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হাজী তৈয়েবুর রহমান সড়কের বেহালদশা শ্রীবরদীতে নদীর পাড় থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার মুরাদনগরে জালিয়াতির অভিযোগে দুদকের মামলায় শিক্ষক গ্রেফতার গাংনীর কুমারীডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ইয়াবাসহ আটক গাংনীতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধুর আত্মহত্যা করলা সাথে শত্রুতা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রলার ডুবিতে নিহত মামুনের পরিবার ফেরত পেল মেডিকেলে ভর্তির ১৮ লাখ টাকা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

দুই সন্তানের জনক প্রেমিকের বাড়িতে তিন সন্তানের জননীর অনশন

Muktir Lorai / ১২৮ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১

রাজশাহী ব‍্যুরোঃ রাজশাহীর বাঘায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক নারী। বুধবার (১১ আগষ্ট) দুপুর থেকে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেছেন তিনি। সংবাদ পেয়ে প্রেমিক বকুল (৫০) বাড়ি থেকে পালিয়েছেন।

বকুল উপজেলার মনিগ্রামের মৃত আহম্মদ আলী (মেম্বার) এর ছেলে। এবং ২ সন্তানের জনক। অন্যদিকে অনশনরত নারী উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের বাউসা হেদাতি পাড়া গ্রামের আবু আফজালের স্ত্রী। তিনি ৩ সন্তানের জননী।

ওই নারী সাংবাদিকদের বলেন, সংসার থাকা অবস্থায় বকুল প্রলোভন দেখিয়ে আমার সঙ্গে ৩ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক করে। বকুল তার সঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর ন্যায় সম্পর্ক স্থাপন করে জানিয়ে তিনি বলেন, রাজশাহী, ঈশ্বরদী সহ বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে সে আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে। স্বামীর কাছ থেকে চলে আসলে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দেয়। আমি তার কথা বিশ্বাস করে আমার স্বামীর কাছ থেকে চলে আসি। এখন সে আমাকে বিয়ে না করে বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে।

এই নারীর মা সাংবাদিকদের জানান, এই বকুল আমার মেয়ের সাথে প্রতিদিন মোবাইলে কথা বলত।
সাতদিন আমার মেয়েকে খুঁজে না পেয়ে বকুল কে জানালে, সে আমার মেয়েকে বের করে দেয়। এখন আমার মেয়ের সব শেষ করে ফেলেছে।

প্রেমিক বকুলের স্ত্রী বলেন, আমার স্বামী ভুল করতেই পারে। মহিলাটি আমার বাড়ীতে আসলো ক্যান।

এ ব্যাপারে প্রেমিক বকুলের বক্তব্য জানতে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

মনিগ্রাম ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, ৭নং ওয়ার্ডের মুকুল হোসেন আমার ইউপি সদস্য ঘটনার স্থলে গিয়েছে এবং ঘটনা সত্য আর মেয়ের বাবা আমাকে ফোনে জানিয়েছে। ছেলের বাড়ীর লোকজন এখন বাড়ীতে নেই, ফাঁকা বাড়ী। স্থানীয়ভাবে যদি ঘটনার মিমাংশা হয় ভাল, তা না হলে আইনের আশ্রয় নিতে বলেছি মেয়েটির বাবাকে।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ