• শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

দেবীদ্বারে গরুবাজার ইজারার দরপত্র জমাদানে বাঁধা-সংঘর্ষ; হামলায় আহত- ৩

news / ১৮ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১

দেবীদ্বার সংবাদদাতা: কুমিল্লার দেবীদ্বারে কোরবানীর গরুর হাটের ইজারা নিতে দরপত্র জমা দিতে গেলে সরকারদলীয় বিভিন্ন অ্গংসংগঠনের কিছু নেতা-কর্মীর হামলায় অপর সরকারদলীয় অঙ্গসংগঠনের ৩ নেতা কর্মীকে মার ধর করে উপজেলা কমপ্লেক্স থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপরদিকে একজন সরকার দলীয় নেতাকে দরপত্র জমা দিতে বাঁধা দেওয়ারও অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার বেলা দেড়টায় উপজেলা পরিষদের প্রশাসনিক ভবনের সামনে।

দেবীদ্বার উপজেলার ১৮টি গরুর হাট-বাজার ইজারা নেয়ার দরপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল আজ। সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ওই দরপত্র জমা দেয়ার সময়-সীমা বেঁধে দেয়া হয়েছিল।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখা কর্তৃক এক নির্দেশনায় দেবীদ্বার উপজেলার ১৮টি অস্থায়ী গরু-ছাগলের ইজারা বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার স্বাক্ষরিত ওই দরপত্র আহবানের শেষ সময় ছিল ১৩ জুলাই সকাল থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত, এবং দরপত্র খোলার তারিখ একই দিনের বেলা ৩টায়। এসময়ে মোট ৫শত টাকা মূল্যের ১২৭টি দরপত্র বিক্রি হয়।

অভিযোগকারীরা জানান, পূর্বপরিকল্পিত ভাবে একদল লোক দরপত্র জমা দিতে গেলে কেউ কেউ বাঁধার সম্মূখীনই নয়, হামলাও করা হয়েছে।
আহত উপজেলার ধামতী ইউনিয়ন’র ৬নং ওয়ার্ড আ’লীগ নেতা মোঃ রমজান আলী(৫০), ৩নং ওয়ার্ড আ’লীগ নেতা মোঃ জানে আলম সরকার(৩৫), ভাণী ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগ’র সাধারন সম্পাদক আবুল বাশার জানান, সকাল থেকেই আমাদের বিভিন্ন সরকারদলীয় অঙ্গসংগঠনের বেশ কিছু নেতা-কর্মী দরপত্র জমাদানের কক্ষ ঘিরে রেখেছিল, তাদের বাহিরে কেউ যাতে দরপত্র জমা না দিতে পারে। আমরা কৌশলে দরপত্র জমা দিলেও ওরা টের পেয়ে আমাদের উপর হামলা চালায়। সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা অন্তর এসে আমাদের সাথে বাগবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। পরে ফতেহাবাদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ’র সাধারন সম্পাদক সায়েম বাবু শাওনের নেতৃত্বে ১০/১২জন সন্ত্রাসী আমাদের বেধরক মারধরও লাঞ্ছিত করে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স থেকে বের করে দেয়। এসময় দায়িত্বরত পুলিশ নিরব দর্শকের ভ‚মিকা পালন করেছে। এসময় পুরো উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

বুড়িরপাড় গ্রামের মোঃ তারনভীর জানান, ওরা আমাকে দরপত্র জমা দিতেই দেয়নি, হুমকীর মুখে উপজেলা পরিষদ থেকে বের করে দেয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান জানান, নির্ধারিত সময়ে দরপত্র বাক্স খোলা হয়েছে, সব কিছু নিয়মতান্ত্রিক ভাবেই সম্পন্ন করা হয়েছে। আমার জানামতে বা আমার উপস্থিতিতে কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি।

এব্যাপারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কালাম আজাদ বলেন, বেলা দেড়টায় দরপত্র জমাতদানকারীদের উপর হামলার সংবাদ পেয়ে পুলিশ প্রশাসকে জানাই, তারা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। ১২৭টি দরপত্র বিক্রি হলেও অদ্য বিকেল ৩টায় বঙ্খুলার পর ৫১টি জমা পাওয়া যায়। আমি বিকেল সাড়ে ৩টায় অফিসে আসার পর দরপত্র জমাদিতে না পারা ২জন ব্যাংক ড্রাফট দেখিয়ে অভিযোগ করেছেন। তবে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় বিগত কয়েক বছরের মধ্যে এবারই মাত্র ১৮টি অস্থায়ী গরু- ছাগলের হাট ইজারায় জমাপরা রাজস্ব আয় পেয়েছি ভ্যাট ছাড়া ১৮লক্ষ ৩৪ হাজার ৫৮১টাকা।

এব্যপারে দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি সার্বিক) মোঃ আরিফুর রহমান বিকেল ৫টায় সেল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, টেন্ডারবক্সের নিরাপত্তায় প্রথম থেকেই পুলিশ মোতায়েন ছিল। হট্রগোলের সংবাদ পেয়ে কয়েকজন অফিসার সহ একটি পুলিশদল ঘটনাস্থলে পাঠাই। সংঘর্ষ চলাকালে বড়ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি, পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ