ঢাকা ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

নতুন নিয়মে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন উৎসব শুরু

মোঃ ইলিয়াছ আহমদ, বিশেষ প্রতিনিধি

এই প্রথম নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী সারাদেশে এনসিটিবি প্রশ্নপত্র মোতাবেক ৫ ঘন্টা ব্যাপী মূল্যায়ন উৎসব শুরু হয়েছে।

৫ ঘন্টা পরীক্ষার মাঝে ১ ঘন্টা বিরতি দেয়া হয়েছে।

বরুড়া হাজী নোয়াব আলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় উৎসব মুখর বিরাজ করলে ও ছাত্র শিক্ষক অভিভাবক সবার মাঝে কৌতুহল লক্ষ করা গেছে।

আগের প্রশ্নের মতো নয় এবারের প্রশ্ন পত্র। পারদর্শিতা সূচক অনুযায়ী এনসিটিবি কর্তৃক প্রশ্ন পত্র প্রনয়ন করা হয়েছে।

পরীক্ষার একদিন আগে প্রধান শিক্ষকের আইডিতে প্রশ্ন পাঠিয়ে দেন এনসিটিবি।

ফটোকপি করে প্রশ্ন শিক্ষার্থীদেরকে দেওয়া হয়। ২০ জন শিক্ষার্থী জন্য ১ জন করে শিক্ষক দায়িত্ব পালন করবেন এবং মূল্যায়ন করবেন।

মূল্যায়ন লিখিত পরীক্ষা ৬৫ এবং ৩৫ ব্যবহারিক পরীক্ষা।

প্রতি শিক্ষার্থী প্রতি কাজের জন্য চেষ্টা /আংশিক / কার্য্যকর এই হিসাবে মূল্যায়ন করা হবে।

নতুন কারিকুলাম হওয়ায় অভিভাবক গণ এই প্রশ্নের ধারণাই নেই। তবে শিক্ষকরা চেষ্টা করছেন অভিভাবকদেরকে বুঝানোর জন্য। অভিভাবকদের মুখে নানান কথা শুনা যায়। কেউ বলছে দেখি কি হয়, কেউ বলছে আল্লাহ তায়ালা ভালো জানেন কি হচ্ছে। আবার কারোর কোন প্রশ্ন নেই।

এ বিষয় বরুড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রতন কুমার সাহা বলেন, মূল্যায়ন উৎসবে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ৮ পাতার একটি খাতা দেওয়া হবে। একই সিপ্টে সারাদেশে পরীক্ষা হবে। দুই সিপ্ট করার সুযোগ নেই। ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত এ মূল্যায়ন উৎসব। ১০ টা থেকে ৩ টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা নেওয়া হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

নওগাঁ-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ কাজের নানান অনিয়মের অভিযোগ

নতুন নিয়মে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন উৎসব শুরু

আপডেট সময় ০২:৩৫:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

মোঃ ইলিয়াছ আহমদ, বিশেষ প্রতিনিধি

এই প্রথম নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী সারাদেশে এনসিটিবি প্রশ্নপত্র মোতাবেক ৫ ঘন্টা ব্যাপী মূল্যায়ন উৎসব শুরু হয়েছে।

৫ ঘন্টা পরীক্ষার মাঝে ১ ঘন্টা বিরতি দেয়া হয়েছে।

বরুড়া হাজী নোয়াব আলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় উৎসব মুখর বিরাজ করলে ও ছাত্র শিক্ষক অভিভাবক সবার মাঝে কৌতুহল লক্ষ করা গেছে।

আগের প্রশ্নের মতো নয় এবারের প্রশ্ন পত্র। পারদর্শিতা সূচক অনুযায়ী এনসিটিবি কর্তৃক প্রশ্ন পত্র প্রনয়ন করা হয়েছে।

পরীক্ষার একদিন আগে প্রধান শিক্ষকের আইডিতে প্রশ্ন পাঠিয়ে দেন এনসিটিবি।

ফটোকপি করে প্রশ্ন শিক্ষার্থীদেরকে দেওয়া হয়। ২০ জন শিক্ষার্থী জন্য ১ জন করে শিক্ষক দায়িত্ব পালন করবেন এবং মূল্যায়ন করবেন।

মূল্যায়ন লিখিত পরীক্ষা ৬৫ এবং ৩৫ ব্যবহারিক পরীক্ষা।

প্রতি শিক্ষার্থী প্রতি কাজের জন্য চেষ্টা /আংশিক / কার্য্যকর এই হিসাবে মূল্যায়ন করা হবে।

নতুন কারিকুলাম হওয়ায় অভিভাবক গণ এই প্রশ্নের ধারণাই নেই। তবে শিক্ষকরা চেষ্টা করছেন অভিভাবকদেরকে বুঝানোর জন্য। অভিভাবকদের মুখে নানান কথা শুনা যায়। কেউ বলছে দেখি কি হয়, কেউ বলছে আল্লাহ তায়ালা ভালো জানেন কি হচ্ছে। আবার কারোর কোন প্রশ্ন নেই।

এ বিষয় বরুড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রতন কুমার সাহা বলেন, মূল্যায়ন উৎসবে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ৮ পাতার একটি খাতা দেওয়া হবে। একই সিপ্টে সারাদেশে পরীক্ষা হবে। দুই সিপ্ট করার সুযোগ নেই। ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত এ মূল্যায়ন উৎসব। ১০ টা থেকে ৩ টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা নেওয়া হয়।