ঢাকা ০৩:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নৌকা মার্কার নির্বাচনী প্রচারণা করতে গিয়ে শিশুকে যৌন হয়রানি

  • ডেস্ক রিপোর্টঃ
  • আপডেট সময় ০৮:২২:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩
  • ১০৬ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখলীর কলাপাড়া উপজেলার ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষ্যে নৌকা মার্কার প্রচারণার নামে বাড়ি ঢুকে ১০ বছরের শিশুকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে দেলোয়ার তালুকদার (৫৫) নামে একজনের বিরুদ্ধে। শিশুটির মা মহিপুর থানায় অভিযুক্তের নামে মামলা দায়ের করেছেন।

শনিবার (১১ মার্চ) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত দেলোয়ার তালুকদার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সদস্য।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার সময় ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের নৌকা মার্কার প্রচারণা চালাতে অভিযুক্ত দেলোয়ার তালুকদারসহ ১০ থেকে ১৫ জন কর্মী বরকুতিয়া গ্রামে যান। সঙ্গে থাকা অন্য কর্মীরা একটি চায়ের দোকানে চা খেতে বসলে অভিযুক্ত দেলোয়ার প্রচারণার নামে ওই শিশুটির বাড়িতে যায়। বাসায় কেউ নেই জেনে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে শিশুটির ওপর যৌন নিপীড়নের চেষ্টা চালায়। একপর্যায়ে শিশুটি মা আসছে বলে চিৎকার দিলে অভিযুক্ত দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর মাস্টার বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করেন।

শিশুটির মা বলেন, আমি কাজের জন্য কৃষি জমিতে যাই। এই ফাঁকে বাসা খালি পেয়ে প্রচারণার নামে ঘরে ঢুকে আমার মেয়েকে যৌন নিপীড়ন করে। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

শিশুটির দাদি বলেন, আমরা খেতে কাজ করছিলাম। আমার নাতনি এখনো কান্না করছে। আমরা এর বিচার চাই।

মহিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার আবুল খায়ের বলেন, শিশুটির মা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা অভিযান চালিয়ে রাতেই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছি। রোববার সকাল ১০টায় আদালতের সোপর্দ করব।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নৌকা মার্কার নির্বাচনী প্রচারণা করতে গিয়ে শিশুকে যৌন হয়রানি

আপডেট সময় ০৮:২২:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩

পটুয়াখলীর কলাপাড়া উপজেলার ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষ্যে নৌকা মার্কার প্রচারণার নামে বাড়ি ঢুকে ১০ বছরের শিশুকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে দেলোয়ার তালুকদার (৫৫) নামে একজনের বিরুদ্ধে। শিশুটির মা মহিপুর থানায় অভিযুক্তের নামে মামলা দায়ের করেছেন।

শনিবার (১১ মার্চ) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত দেলোয়ার তালুকদার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সদস্য।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার সময় ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের নৌকা মার্কার প্রচারণা চালাতে অভিযুক্ত দেলোয়ার তালুকদারসহ ১০ থেকে ১৫ জন কর্মী বরকুতিয়া গ্রামে যান। সঙ্গে থাকা অন্য কর্মীরা একটি চায়ের দোকানে চা খেতে বসলে অভিযুক্ত দেলোয়ার প্রচারণার নামে ওই শিশুটির বাড়িতে যায়। বাসায় কেউ নেই জেনে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে শিশুটির ওপর যৌন নিপীড়নের চেষ্টা চালায়। একপর্যায়ে শিশুটি মা আসছে বলে চিৎকার দিলে অভিযুক্ত দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর মাস্টার বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করেন।

শিশুটির মা বলেন, আমি কাজের জন্য কৃষি জমিতে যাই। এই ফাঁকে বাসা খালি পেয়ে প্রচারণার নামে ঘরে ঢুকে আমার মেয়েকে যৌন নিপীড়ন করে। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

শিশুটির দাদি বলেন, আমরা খেতে কাজ করছিলাম। আমার নাতনি এখনো কান্না করছে। আমরা এর বিচার চাই।

মহিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার আবুল খায়ের বলেন, শিশুটির মা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা অভিযান চালিয়ে রাতেই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছি। রোববার সকাল ১০টায় আদালতের সোপর্দ করব।