ঢাকা ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফুলবাড়ীতে রেললাইনের পাশ থেকে কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে রেলগেটের রেল ক্রোসিংয়ের পাশ থেকে কলেজ ছাত্র মোঃ সিফাত আহম্মেদ শিশিরের রহস্যজনক মৃত্যু, পার্বতীপুর জিআরপি পুলিশের মরদেহ উদ্ধার।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। ৩ নং কাজিহাল ইউনিয়নের পুখুরী হাটের আখিঁঘোটনা গ্রামের মোঃ আব্দুল খালেকের ছেলে নিহত মোঃ সিফাত আহম্মেদ শিশিরের (১৯) মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে প্রেরণ করেছে পার্বতীপুর জিআরপি পুলিশ। জানা যায় সিফাত আহম্মেদ ফুলবাড়ী শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায় কয়েকদিন আগে ফেসবুকে ছবি ছাড়াকে কেন্দ্র করে পাশের গ্রামের ছেলেদের সঙ্গে তর্কাতর্কি ও একপর্যায়ে মারামারি হয়। ১৬ মার্চ রাতে তাদের বিচারের সমাধান হওয়ার কথা ছিলো। স্বজনদের দাবী শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

পার্বতীপুর জিআরপি পুলিশের এসআই মোঃ সাজিদ বলেন আমরা ৯৯৯ ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট ছাড়া আমরা কিছু বলতে পারবো না। এটি হত্যাকান্ড না আত্মহত্যা সেটা তদন্ত করার পর জানা যাবে। কাজিহাল ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ খাজানুর ইসলাম বলেন, রাতে সমাধানের জন্য বসার কথা ছিলো। সমাধানের পূর্বেই এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটলো। মনে হচ্ছে এটা হত্যাকান্ড।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফুলবাড়ীতে রেললাইনের পাশ থেকে কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় ১০:৩৬:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে রেলগেটের রেল ক্রোসিংয়ের পাশ থেকে কলেজ ছাত্র মোঃ সিফাত আহম্মেদ শিশিরের রহস্যজনক মৃত্যু, পার্বতীপুর জিআরপি পুলিশের মরদেহ উদ্ধার।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। ৩ নং কাজিহাল ইউনিয়নের পুখুরী হাটের আখিঁঘোটনা গ্রামের মোঃ আব্দুল খালেকের ছেলে নিহত মোঃ সিফাত আহম্মেদ শিশিরের (১৯) মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে প্রেরণ করেছে পার্বতীপুর জিআরপি পুলিশ। জানা যায় সিফাত আহম্মেদ ফুলবাড়ী শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায় কয়েকদিন আগে ফেসবুকে ছবি ছাড়াকে কেন্দ্র করে পাশের গ্রামের ছেলেদের সঙ্গে তর্কাতর্কি ও একপর্যায়ে মারামারি হয়। ১৬ মার্চ রাতে তাদের বিচারের সমাধান হওয়ার কথা ছিলো। স্বজনদের দাবী শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

পার্বতীপুর জিআরপি পুলিশের এসআই মোঃ সাজিদ বলেন আমরা ৯৯৯ ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট ছাড়া আমরা কিছু বলতে পারবো না। এটি হত্যাকান্ড না আত্মহত্যা সেটা তদন্ত করার পর জানা যাবে। কাজিহাল ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ খাজানুর ইসলাম বলেন, রাতে সমাধানের জন্য বসার কথা ছিলো। সমাধানের পূর্বেই এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটলো। মনে হচ্ছে এটা হত্যাকান্ড।