ঢাকা ০১:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফুলবাড়ীতে স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

মোহাম্মদ আজগার আলী, দিনাজপুর;
দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ীতে নবম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী নিজ শয়ন কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) রাত আনুমানিক ৩ টা হতে ভোর ৫ টার মধ্যে ঘটনাটি ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। ফুলবাড়ী উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের গরপিংলাই গ্রামের মোঃ শরিফ মাহমুদ ও বুলবুলি বেগমের মেয়ে মোছাঃ শ্রাবনী আক্তার মিনা (১৬) রাতের খাবার খেয়ে নিজ শয়ন কক্ষে ঘুমাতে যান। পরে রাতে নিজের ওড়না গলায় পেচিয়ে ফাঁস দিলে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

প্রতিদিনের মতো তার মা বুলবুলি বেগম ভোরে মেয়েকে ডাকতে গেলে কোনো সাড়াশব্দ পাননা। চিৎকার করে ডাকাডাকি করলে লোকজন এসে ঘরের দরজা ভেঙেঁ মেয়েকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে থাকতে দেখেন। এভাবেই একটি মেয়ের জীবনের সমাপ্তি ঘটবে তা কেউ ভাবতে পারেনি।

শ্রাবনী আক্তার এবছর জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। বাবা মায়ের আদরের সন্তান এভাবে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করবে তা কেউ ভাবতেই পারেনি। মেয়েটির অকাল মৃত্যুতে এলাকার শোকের ছায়া নেমেছে। মেয়েটির মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি। এলাকাবাসী এবং পরিবারের লোকজন কেউ মুখ খুলছেনা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পুলিশ খবর পেয়ে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে পোস্ট মটেমের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে এবং থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফুলবাড়ীতে স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

আপডেট সময় ০২:০৮:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২

মোহাম্মদ আজগার আলী, দিনাজপুর;
দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ীতে নবম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী নিজ শয়ন কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) রাত আনুমানিক ৩ টা হতে ভোর ৫ টার মধ্যে ঘটনাটি ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। ফুলবাড়ী উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের গরপিংলাই গ্রামের মোঃ শরিফ মাহমুদ ও বুলবুলি বেগমের মেয়ে মোছাঃ শ্রাবনী আক্তার মিনা (১৬) রাতের খাবার খেয়ে নিজ শয়ন কক্ষে ঘুমাতে যান। পরে রাতে নিজের ওড়না গলায় পেচিয়ে ফাঁস দিলে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

প্রতিদিনের মতো তার মা বুলবুলি বেগম ভোরে মেয়েকে ডাকতে গেলে কোনো সাড়াশব্দ পাননা। চিৎকার করে ডাকাডাকি করলে লোকজন এসে ঘরের দরজা ভেঙেঁ মেয়েকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে থাকতে দেখেন। এভাবেই একটি মেয়ের জীবনের সমাপ্তি ঘটবে তা কেউ ভাবতে পারেনি।

শ্রাবনী আক্তার এবছর জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। বাবা মায়ের আদরের সন্তান এভাবে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করবে তা কেউ ভাবতেই পারেনি। মেয়েটির অকাল মৃত্যুতে এলাকার শোকের ছায়া নেমেছে। মেয়েটির মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি। এলাকাবাসী এবং পরিবারের লোকজন কেউ মুখ খুলছেনা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পুলিশ খবর পেয়ে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে পোস্ট মটেমের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে এবং থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।