ঢাকা ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo সাংবাদিকতা নিয়ে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের বিবৃতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান Logo রূপসায় ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত Logo আমতলীতে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠানে আসার পথে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত Logo বরুড়ায় আ.লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত Logo চাঁপাই নবাবগঞ্জে ১৫০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার সহ দুইজন গ্রেফতার Logo সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে কালীগঞ্জে মানববন্ধন Logo গলাচিপায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন Logo তোমাকে যে ধরতে আমি চাই Logo নওগাঁ থেকে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ তিন মাদক কারবারি গ্রেফতার Logo মুরাদনগরে রোহিঙ্গাকে জন্ম নিবন্ধন করে দেওয়ায় ইউপি সচিব গ্রেফতার

বরুড়ায় আদ্রা ইউনিয়নে জন্ম নিবন্ধন বাণিজ্যের অভিযোগ

মোঃ মহিবুল্লাহ্ ভূঁইয়া বাবুল, স্টাফ রিপোর্টারঃ কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ১৩ নম্বর আদ্রা ইউনিয়নে জন্ম নিবন্ধন বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার (১৮ ই জানুয়ারি ২০২৩ ইং) দুপুর ১২টার সময় ওই ইউনিয়নের পেরপেটি ভুক্তভোগীরা এসব অভিযোগ করেন।

এই বিষয়ে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক ভুক্তভোগী জানান, আমি গত ১ মাস আগে এই ১৩ নং আদ্রা ইউনিয়ন থেকে আমার পরিবারের ৪ টি জন্ম নিবন্ধন করেছি, আমার কাছ থেকে প্রতিটি নিবন্ধনে ৩ শত টাকা নিয়েছে।

কাকৈর তলা গ্রামের শারমিন আক্তার নামের আরেক ভুক্তভোগী জানান, আমার বাচ্চার বয়স এখনও একবছর হয়নি। বাচ্চার জন্ম নিবন্ধন করতে গেলে
ইউপি সচিব ও উদ্যোক্তা মেহজাবিন
আমার ২০০ টাকা নেন। আর ১ বছরের উপরে বাচ্চার জন্ম নিবন্ধন করতে ৩০০ টাকা করে লাগবে। ভুক্তভোগীরা বলেন, আমাদের কাছ থেকে জন্ম নিবন্ধন করার অজুহাতে এভাবে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ওই চক্র। তারা বলেন, আমরা অসহায় ও তাদের কাছে জিম্মি হয়ে আছি।

আমরা সাধারণ মানুষ এই বিষয়ে মুখ খুললে বা বলতে চাইলে আমাদের জন্ম নিবন্ধন দিবে না বলে হুমকি দেয়।
আমরা সাধারণ মানুষ নিরুপায় হয়ে জম্ম নিবন্ধন নিতে বাধ্য হই।

এ বিষয়ে উদ্যোক্তা শাহ পরান বলেন, আমি অনলাইনের জন্য ১ শত টাকা নেই বাকি। ১ শত ৫০ থেকে ২ শত টাকা ওইখানের সচিব মেহজাবিন ম্যাডাম নেন।

এই বিষয়ে ইউনিয়নের সচিবের সাথে কথা বললে তিনি প্রথমে স্বীকার করলেও পরে পাশকাটিয়ে যান।

১৩ নং আদ্রা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাকিবুল হাসান (লিমন) বলেন, আমরা জন্ম নিবন্ধন করতে ১৫০ টাকা করে রাখি। ১ শত টাকা সরকারের খাতা জমা দেওয়া হয়, আর বাকি টাকা অফিস ও অন্যান্য খরচের বাবদ ব্যয় করা হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিকতা নিয়ে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের বিবৃতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান

বরুড়ায় আদ্রা ইউনিয়নে জন্ম নিবন্ধন বাণিজ্যের অভিযোগ

আপডেট সময় ০৩:৪৫:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

মোঃ মহিবুল্লাহ্ ভূঁইয়া বাবুল, স্টাফ রিপোর্টারঃ কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ১৩ নম্বর আদ্রা ইউনিয়নে জন্ম নিবন্ধন বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার (১৮ ই জানুয়ারি ২০২৩ ইং) দুপুর ১২টার সময় ওই ইউনিয়নের পেরপেটি ভুক্তভোগীরা এসব অভিযোগ করেন।

এই বিষয়ে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক ভুক্তভোগী জানান, আমি গত ১ মাস আগে এই ১৩ নং আদ্রা ইউনিয়ন থেকে আমার পরিবারের ৪ টি জন্ম নিবন্ধন করেছি, আমার কাছ থেকে প্রতিটি নিবন্ধনে ৩ শত টাকা নিয়েছে।

কাকৈর তলা গ্রামের শারমিন আক্তার নামের আরেক ভুক্তভোগী জানান, আমার বাচ্চার বয়স এখনও একবছর হয়নি। বাচ্চার জন্ম নিবন্ধন করতে গেলে
ইউপি সচিব ও উদ্যোক্তা মেহজাবিন
আমার ২০০ টাকা নেন। আর ১ বছরের উপরে বাচ্চার জন্ম নিবন্ধন করতে ৩০০ টাকা করে লাগবে। ভুক্তভোগীরা বলেন, আমাদের কাছ থেকে জন্ম নিবন্ধন করার অজুহাতে এভাবে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ওই চক্র। তারা বলেন, আমরা অসহায় ও তাদের কাছে জিম্মি হয়ে আছি।

আমরা সাধারণ মানুষ এই বিষয়ে মুখ খুললে বা বলতে চাইলে আমাদের জন্ম নিবন্ধন দিবে না বলে হুমকি দেয়।
আমরা সাধারণ মানুষ নিরুপায় হয়ে জম্ম নিবন্ধন নিতে বাধ্য হই।

এ বিষয়ে উদ্যোক্তা শাহ পরান বলেন, আমি অনলাইনের জন্য ১ শত টাকা নেই বাকি। ১ শত ৫০ থেকে ২ শত টাকা ওইখানের সচিব মেহজাবিন ম্যাডাম নেন।

এই বিষয়ে ইউনিয়নের সচিবের সাথে কথা বললে তিনি প্রথমে স্বীকার করলেও পরে পাশকাটিয়ে যান।

১৩ নং আদ্রা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাকিবুল হাসান (লিমন) বলেন, আমরা জন্ম নিবন্ধন করতে ১৫০ টাকা করে রাখি। ১ শত টাকা সরকারের খাতা জমা দেওয়া হয়, আর বাকি টাকা অফিস ও অন্যান্য খরচের বাবদ ব্যয় করা হয়।