ঢাকা ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরুড়ায় নওগাঁ গ্রামে বিড়াল প্রজাতির শুকনের দেখা

মোঃ মহিবুল্লাহ্ ভূঁইয়া বাবুল, স্টাফ রিপোর্টারঃ কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার নওগাঁ গ্রামে বিড়াল প্রজাতির একটি শুকনের দেখা মিলেছে।

৭ই ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় কুমিল্লা বরুড়ায় নওগাঁ গ্রামে দীঘির পাড়ে বিড়াল প্রজাতির শুকন দেখতে পায়।
দীঘির পাড় গ্রামে পড়ে থাকা শুকন পাখিটি উদ্ধার করে ঐ এলাকার শংকর ও ফারুক।
পরে স্থানীয় লোকেরা এই শুকুন পাখিটিকে রাস্তা পাশে দোকান ঘরে নিয়ে আসলে, একনজর দখার জন্য এলাকার লোকজন জোর হয়।
পর স্থানীয়রা সিদ্ধান্ত নেন এই শুকুন পাখিটিকে বন বিভাগের কর্মকর্তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ৯৯৯ কল করেন।
৯৯৯ কল করে কোন সারা না পেয়ে,স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী মোঃ মহিবুল্লাহ ভূইয়া বাবুলকে বিষয়টি জানান।
এ বিষয়ে মোঃ মহিবুল্লাহ ভূঁইয়া ফেসবুকে আপডেট দিলে। বিভিন্ন বন বিভাগে কর্মকর্তা গন যোগাযোগ করেন,
আজ ৮ ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় সাংবাদিক মোঃ মহিবুল্লাহ্ ভূঁইয়া বাবুল এর উপস্থিতিতে এলাকার লোকজন সহ

কাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম অফিসার ইন চার্জ,কুমিল্লা সামাজিক বন বিভাগ এবং বরুড়া উপজেলা বন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত বর্তমানে পাখিটি বিভাগীয় বন কর্মকর্তা দায়িত্ব) কে বুঝিয়ে দেন

মোহাম্মদ আলী এবং IUCN মুখপাত্র মিসেস জেরিনার পরামর্শে বিশ্রামে রাখা হয়েছে, কেননা হিমালয় থেকে পাড়ি দিয়ে এসেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এরমধ্যে এলাকার লোকজন আনন্দ উপভোগ করছে, বন বিভাগের কর্মকর্তার হাতে শুকুন পাখিটিকে নিরাপদে স্থানান্তর করা জন্য।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বরুড়ায় নওগাঁ গ্রামে বিড়াল প্রজাতির শুকনের দেখা

আপডেট সময় ০১:২২:২৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২

মোঃ মহিবুল্লাহ্ ভূঁইয়া বাবুল, স্টাফ রিপোর্টারঃ কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার নওগাঁ গ্রামে বিড়াল প্রজাতির একটি শুকনের দেখা মিলেছে।

৭ই ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় কুমিল্লা বরুড়ায় নওগাঁ গ্রামে দীঘির পাড়ে বিড়াল প্রজাতির শুকন দেখতে পায়।
দীঘির পাড় গ্রামে পড়ে থাকা শুকন পাখিটি উদ্ধার করে ঐ এলাকার শংকর ও ফারুক।
পরে স্থানীয় লোকেরা এই শুকুন পাখিটিকে রাস্তা পাশে দোকান ঘরে নিয়ে আসলে, একনজর দখার জন্য এলাকার লোকজন জোর হয়।
পর স্থানীয়রা সিদ্ধান্ত নেন এই শুকুন পাখিটিকে বন বিভাগের কর্মকর্তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ৯৯৯ কল করেন।
৯৯৯ কল করে কোন সারা না পেয়ে,স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী মোঃ মহিবুল্লাহ ভূইয়া বাবুলকে বিষয়টি জানান।
এ বিষয়ে মোঃ মহিবুল্লাহ ভূঁইয়া ফেসবুকে আপডেট দিলে। বিভিন্ন বন বিভাগে কর্মকর্তা গন যোগাযোগ করেন,
আজ ৮ ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় সাংবাদিক মোঃ মহিবুল্লাহ্ ভূঁইয়া বাবুল এর উপস্থিতিতে এলাকার লোকজন সহ

কাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম অফিসার ইন চার্জ,কুমিল্লা সামাজিক বন বিভাগ এবং বরুড়া উপজেলা বন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত বর্তমানে পাখিটি বিভাগীয় বন কর্মকর্তা দায়িত্ব) কে বুঝিয়ে দেন

মোহাম্মদ আলী এবং IUCN মুখপাত্র মিসেস জেরিনার পরামর্শে বিশ্রামে রাখা হয়েছে, কেননা হিমালয় থেকে পাড়ি দিয়ে এসেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এরমধ্যে এলাকার লোকজন আনন্দ উপভোগ করছে, বন বিভাগের কর্মকর্তার হাতে শুকুন পাখিটিকে নিরাপদে স্থানান্তর করা জন্য।