ঢাকা ১২:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাগেরহাটে চাঞ্চল্যকর শামীম হত্যার মূলহোতা গ্রেপ্তার

অতনু চৌধুরী রাজু, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ শামীম হত্যা মামলার অন্যতম আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব ৬। রোববার আসামিকে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানা এলাকা হতে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া আসামি হল আক্কাচ হাওলাদার।

তিনি বাগেরহাটের বাসিন্দা।
নিহত শামীম হাওলাদার ধর্ষণ মামলার প্রধান স্বাক্ষী ছিলেন।

র‌্যাবের পাঠানো প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানা গেছে, ২৯ নভেম্বর শামীমকে বাগেরহাট সদর থানাধীন বড়বাাঁশ বাড়িয়া এলাকায় পেয়ে এলোপাথাড়ীভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। গুরুতর অবস্থায় ভিকটিম শামিম হাওলাদারকে প্রথমে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওইদিন রাতে শামীম চিকিৎসাধীন অবস্থায় শামীম মারা যায়। এ ব্যাপারে নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। র‌্যাব-৬ এর একটি আভিযানিক দল উক্ত হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে এবং অভিযান অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার রাত ১২ টার দিকে র‌্যাব-৬ সদর কোম্পানির একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আক্কাচ হাওলাদারকে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানা এলাকা হতে গ্রেপ্তার করে। পরবর্তীতে আক্কাচকে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

বাগেরহাটে চাঞ্চল্যকর শামীম হত্যার মূলহোতা গ্রেপ্তার

আপডেট সময় ১১:৩২:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২

অতনু চৌধুরী রাজু, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ শামীম হত্যা মামলার অন্যতম আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব ৬। রোববার আসামিকে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানা এলাকা হতে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া আসামি হল আক্কাচ হাওলাদার।

তিনি বাগেরহাটের বাসিন্দা।
নিহত শামীম হাওলাদার ধর্ষণ মামলার প্রধান স্বাক্ষী ছিলেন।

র‌্যাবের পাঠানো প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানা গেছে, ২৯ নভেম্বর শামীমকে বাগেরহাট সদর থানাধীন বড়বাাঁশ বাড়িয়া এলাকায় পেয়ে এলোপাথাড়ীভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। গুরুতর অবস্থায় ভিকটিম শামিম হাওলাদারকে প্রথমে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওইদিন রাতে শামীম চিকিৎসাধীন অবস্থায় শামীম মারা যায়। এ ব্যাপারে নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। র‌্যাব-৬ এর একটি আভিযানিক দল উক্ত হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে এবং অভিযান অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার রাত ১২ টার দিকে র‌্যাব-৬ সদর কোম্পানির একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আক্কাচ হাওলাদারকে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী মডেল থানা এলাকা হতে গ্রেপ্তার করে। পরবর্তীতে আক্কাচকে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়।