শিরোনাম
ডেউয়াতলী গ্রামের মরহুম মোঃ কোব্বাদ খান ও মান্নান চৌধুরী পরিবারবর্গকে নিয়ে সফিউল্লা খন্দকারের মানহানিকর বক্তব্যের প্রতিবাদ পলাশ শিল্পাঞ্চল সরকারি কলেজ শিক্ষক ও কর্মচারিদের বিক্ষোভ বাস্তবময় জীবনের বাস্তবতা…অনামিকা চৌধুরী রু লাকসামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন : প্রায় ৭লাখ টাকার ক্ষতি মুরাদনগরে সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ের অভ্যন্তরীন প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু আমাদের জাতিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর সুযোগ করে দিয়েছে দীঘিনালায় জেলেদের মাঝে ছাগল বিতরণ গোমস্তাপুরে চাঞ্চল্যকর কুলুলেস ‍‍`মেহেরুল‍‍` হত্যা মামলার আসামি আটক তরুন উদ্যোক্তা নাসিমা জাহান বিনতী’র গ্লোবাল ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড অর্জন পলাশে চাচীর সাথে পরকিয়া করতে গিয়ে প্রেমিকের হাতের কব্জি কর্তন
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

‘বিয়ের জন্য অনশন’ প্ল্যাকার্ড হাতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে তরুণী

Muktir Lorai / ১২৭ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

সাত বছরের প্রেমের সম্পর্ক এবং একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগে প্রেমিকের বাসার সামনে অবস্থান নিয়েছেন প্রেমিকা। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘির সদানন্দ ঘোষের বাড়িতে।
ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘির সদানন্দ ঘোষের বাড়ির সামনে অনশনে বসেন ওই তরুণী। রোববার (২৯ নভেম্বর) সকালে প্রেমিক সদানন্দ ঘোষের বাড়ির সামনে খবরের কাগজ পেতে বসে পড়েন ওই তরুণী। পাশে একটি প্ল্যাকার্ডও রয়েছে। সেটিতে লেখা, ‘বিয়ের জন্য অনশন’। নিচে একটু ছোট হরফে লেখা, ‘৭ বছরের প্রেম’।
উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের তরুণীর দাবি বলেন, ৭ বছর ধরে আমাদের প্রেম। দুই বাড়ির লোকজনও জানে। আমাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও হয়েছে। অথচ এখন সদানন্দ বিয়ে করা তো দূর, আমাকে চিনতেই পারছে না। তার বাড়ির লোকজনও অসহযোগিতা করছেন।
কি কারণে বিয়েতে অমত সদানন্দের? তরুণীর দাবি, তার অন্য জায়গায় বিয়ে ঠিক করেছেন বাড়ির লোকজন। সেই কারণেই এমন ব্যবহার। তিনি বলেন, যতক্ষণ না সদানন্দ আমাকে গ্রহণ করছে, এখান থেকে আমি উঠছি না।
সূত্র: আনন্দবাজার।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »