ঢাকা ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেনাপোল সীমান্তে ১৭ টি স্বর্ণেরবারসহ এক পাচারকারী আটক

যশোর জেলা প্রতিনিধি : যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন ও মহেশপুর ৫৮ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা যৌথ অভিযানে বেনাপোল সীমান্তের খলসী গ্রাম থেকে ১৭ টি স্বর্ণের বার সহ ১ জন পাচারকারীকে আটক করেছে। শনিবার (২৭মে) সকাল ৯টার দিকে স্বর্ন ও পাচারকারীকে আটক করা হয়। আসামী হলেন, বেনাপোল পোর্ট থানার বারোপোতা গ্রামের আবু সাঈদের পুত্র মিকাইল হোসেন পিন্টু (৩৩)।

যশোর (৪৯) বিজিবি অধিনায়ক জানান,গোপন সংবাদে জানতে পারি বেনাপোল পোর্ট থানার খলশী বাজারের পাশে এক পাচারকারী ভারতে স্বর্ন পাচার করার উদ্দেশ্যে আসছে। সে মোতাবেক আমাদের চৌকসদল সেখানে অবস্থান নেন।পরবর্তীতে জনৈক এক ব্যক্তিকে দেখতে পেয়ে তাকে গতিপথ রোধ করে আটক করা হয়। তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদে তার কোমরে বিশেষভাবে লুকাইত অবস্থায় ১৭ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয় এবং তার সাথে থাকা ১ টি মোবাইল ফোনও পাওয়া যায়।স্বর্নের ওজন ২ কেজি ৮শ ২৯ গ্রাম। স্বর্ণ ও ফোনের বাজার আনুমানিক মূল্য ২ কোটি ৮২ লক্ষ ৯১ হাজার টাকা।উদ্ধারকৃত স্বর্ণ ও ফোন বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলার মাধ্যমে সরকারী কোষাগারে জমা প্রদান করা হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বেনাপোল সীমান্তে ১৭ টি স্বর্ণেরবারসহ এক পাচারকারী আটক

আপডেট সময় ০৭:৪৯:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ মে ২০২৩

যশোর জেলা প্রতিনিধি : যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন ও মহেশপুর ৫৮ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা যৌথ অভিযানে বেনাপোল সীমান্তের খলসী গ্রাম থেকে ১৭ টি স্বর্ণের বার সহ ১ জন পাচারকারীকে আটক করেছে। শনিবার (২৭মে) সকাল ৯টার দিকে স্বর্ন ও পাচারকারীকে আটক করা হয়। আসামী হলেন, বেনাপোল পোর্ট থানার বারোপোতা গ্রামের আবু সাঈদের পুত্র মিকাইল হোসেন পিন্টু (৩৩)।

যশোর (৪৯) বিজিবি অধিনায়ক জানান,গোপন সংবাদে জানতে পারি বেনাপোল পোর্ট থানার খলশী বাজারের পাশে এক পাচারকারী ভারতে স্বর্ন পাচার করার উদ্দেশ্যে আসছে। সে মোতাবেক আমাদের চৌকসদল সেখানে অবস্থান নেন।পরবর্তীতে জনৈক এক ব্যক্তিকে দেখতে পেয়ে তাকে গতিপথ রোধ করে আটক করা হয়। তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদে তার কোমরে বিশেষভাবে লুকাইত অবস্থায় ১৭ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয় এবং তার সাথে থাকা ১ টি মোবাইল ফোনও পাওয়া যায়।স্বর্নের ওজন ২ কেজি ৮শ ২৯ গ্রাম। স্বর্ণ ও ফোনের বাজার আনুমানিক মূল্য ২ কোটি ৮২ লক্ষ ৯১ হাজার টাকা।উদ্ধারকৃত স্বর্ণ ও ফোন বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলার মাধ্যমে সরকারী কোষাগারে জমা প্রদান করা হয়েছে।