• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
শিরোনাম
পাচার বাণিজ্যে মতানৈক্যের জেরে সীমান্তে অপহৃত নাবালক ৬ চিকিৎসক নিয়ে ধুঁকে ধুঁকে চলছে বরগুনা সরকারি হাসপাতাল সামাজিক দূরত্ব ভুলে রাসিক মেয়র লিটনের খাদ্য সামগ্রী বিতরন সলঙ্গায় ১০কেজি গাঁজাসহ মাদক ব‍্যবসায়ী আটক বরুড়ায় ১৫০ অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন এসকিউ গ্রুপের শফিউদ্দিন শামীম বাবার মৃত্যুর একদিন পর মাকেও হারালেন সহকারী এটর্নি জেনারেল এড. ফারুক সাতক্ষীরা শহরের বাগানবাড়িতে ভূমিহীনদের পুর্নবাসনের দাবিতে উঠান বৈঠক আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মুরাদনগরে দিনব্যাপী ডিউটি অফিসারের ভূমিকায় এএসপি রূপগঞ্জে ওয়ারেন্টভুক্ত চার পলাতক আসামি গ্রেফতার
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

ভুল মামলায় চার বছর জেল খাটা যুবককে আর্থিক ক্ষতিপূরণের দাবি

news / ৩৯ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১

প্রসেনজিৎ দাস, আগরতলা: ভুল মামলায় জরিয়ে চার্ বছর যিল খাটতে হয়েছে হাবিব মিয়া নাম এক যুবককে। সেই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এবং নিগৃহীত যুবকের ক্ষতিপূরণ দাবি জানাল জমিয়ত উলামায়ে হিন্দ। বৃহস্পতিবার রাজধানীর গেদুমিয়া মসজিদে তিন দফা দাবি নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে জমিয়ত উলামা হিন্দের রাজ্য শাখা। সাংবাদিক সম্মেলনে জমিয়ত উলামা হিন্দের সভাপতি বলেন, গত ২০১৭ এর ১৭ ই মার্চ আগরতলা যোগেন্দ্র নগরের বাসিন্দা হাবিব মিয়াকে কর্ণাটকে এটিএস গ্রেপ্তার করে। তার উপর ভুল অভিযোগ দিয়ে মামলা করে এটিএস। সেই মামলা চলাকালীন হাবিব মিয়াকে ৪ বৎসর কর্ণাটকের জেলে আটকে থাকতে হয়। তারপর সর্বভারতীয় জমিয়ত উলামা হিন্দের সহযোগিতায় সে মামলার লড়েন হাবিব মিয়া। চার বছর ২ মাস ২৮ দিন পর আদালত তাকে বেকসুর খালাস দেয়। রাজ্য জমিয়ত উলামার অভিযোগ, এতে করে একজন ভদ্র ছেলের ভবিষ্যৎ নষ্ট হয়েছে। তার জীবনের মূল্যবান চার চারটি বছর নষ্ট হয়েছে। বর্তমানে সে অসহায়, তার বাবার মৃত্যুতে সে বাড়ি আসতে পারেনি। তাই রাজ্য জমিয়ত উলামা হিন্দ রাজ্য সরকারের কাছে তিন দফা দাবি তুলে দিচ্ছে। যে সমস্ত দাবি নিয়ে এদিন সাংবাদিক সম্মেলন করে সংগঠন তাদের মধ্যে, অবিলম্বে হাবিব মিয়াকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া, আগামী দিনে এমন কোন ঘটনা ঘটলে রাজ্য প্রশাসনের ভালো করে তদন্ত ভার নেওয়া, আগামী দিনে হাবিবের মত নিরীহ মানুষকে মিথ্যে মামলায় না পাঠানো হয় তা সুনিশ্চিত করা।


এই বিভাগের আরো সংবাদ