ঢাকা ১১:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মধুপুরে চলন্ত বাসে ডকাতি

টাঙ্গাইলের মধুপুরে যাত্রীবাহী চলন্ত বা‌সে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতির সময় প্রতিবাদ কর‌াতে ৭ যাত্রীকে মেরে আহত করেছে ডাকাত দল, তা‌দের চি‌কিৎসার জন‌্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকালে মধুপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল আমিন এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সোমবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে টাঙ্গাইল-মধুপুর-ময়মন‌সিংহ আঞ্চ‌লিক মহাসড়‌কের, উপ‌জেলার র‌ক্তিপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে।

আহতরা হলেন, জামালপুর সদর উপজেলার মেষ্টা গ্রামের মসির উদ্দিনের ছেলে তারা মিয়া (৪০) ও সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী কাকলি বেগম (৩৫)। বাকি ৫ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

পুলিশ ও বাসযাত্রীরা জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা মাদারগঞ্জ স্পেশাল পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা থেকে জামালপুরের মাদারগঞ্জ যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে ৭-৮ জনের ডাকাত দল যাত্রীবেশে গাড়িতে ওঠে। বাসটি মধুপুর উপজেলার দেওলাবাড়ি পার হলে ডাকাত দল বাসটির নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয়।প‌রে তারা যাত্রীদের জিম্মি করে নগদ টাকা, মোবাইল ও স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। এ সময় প্রতিবাদ করতে গি‌য়ে ডাকাত দল ৭ যাত্রীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। প‌রে ডাকাতদল মধুপুরের রক্তিপাড়ার উত্তর পাশে নরকোণা এলাকায় নেমে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মধুপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল আমিন যানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

মধুপুরে চলন্ত বাসে ডকাতি

আপডেট সময় ১০:০০:২৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩

টাঙ্গাইলের মধুপুরে যাত্রীবাহী চলন্ত বা‌সে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতির সময় প্রতিবাদ কর‌াতে ৭ যাত্রীকে মেরে আহত করেছে ডাকাত দল, তা‌দের চি‌কিৎসার জন‌্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকালে মধুপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল আমিন এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সোমবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে টাঙ্গাইল-মধুপুর-ময়মন‌সিংহ আঞ্চ‌লিক মহাসড়‌কের, উপ‌জেলার র‌ক্তিপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে।

আহতরা হলেন, জামালপুর সদর উপজেলার মেষ্টা গ্রামের মসির উদ্দিনের ছেলে তারা মিয়া (৪০) ও সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী কাকলি বেগম (৩৫)। বাকি ৫ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

পুলিশ ও বাসযাত্রীরা জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা মাদারগঞ্জ স্পেশাল পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা থেকে জামালপুরের মাদারগঞ্জ যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে ৭-৮ জনের ডাকাত দল যাত্রীবেশে গাড়িতে ওঠে। বাসটি মধুপুর উপজেলার দেওলাবাড়ি পার হলে ডাকাত দল বাসটির নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয়।প‌রে তারা যাত্রীদের জিম্মি করে নগদ টাকা, মোবাইল ও স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। এ সময় প্রতিবাদ করতে গি‌য়ে ডাকাত দল ৭ যাত্রীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। প‌রে ডাকাতদল মধুপুরের রক্তিপাড়ার উত্তর পাশে নরকোণা এলাকায় নেমে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মধুপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল আমিন যানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।