• শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৯ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

মুরাদনগরে অগ্নিকান্ডে নিঃস্ব মাছ ব্যবসায়ীকে নতুন ঘর দিলেন এমপি ইউসুফ হারুন

Muktir Lorai / ৬১ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১

মাহফুজুর রহমান, মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: কুমিল্লার মুরাদনগরে অগ্নিকান্ডে স্ববর্স্ব হারানো নিঃস্ব এক মাছ ব্যবসায়ীকে ব্যাক্তিগত অর্থায়নে একটি নতুন ঘর তৈরী করে দিলেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন (এফসিএ)।
রবিবার বিকেলে উপজেলার নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামে সাংসদ নিজে উপস্থিত হয়ে তাদের এই নতুন ঘর উপহার দেন। এসময় নতুন ঘর পেয়ে মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম আনন্দে অশ্রুশিক্ত হয়ে পড়েন।
মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম বলেন আগুনে পুড়ে যখন আমার সব কিছু শেষ হয়ে গেছে, থাকার মত জায়গা ছিলো না। খাওয়ার কিছু ছিলো না। প্রতিবেশির গোয়াল ঘরে বউ বাচ্চাদের নিয়ে রাত কাটাইতে ছিলাম তখন এমপি সাব খবর পাইয়া আমরার লাইগা বাজার কইরা পাঠাইছে। কয়েকদিনের মধ্যে আমারে একটা নতুন ঘর কইরা দিছে। আমি যখন একবারে নিঃস্ব হইয়া গেছি আমার এই বিপদের দিনে এমপি সাব যেইভাবে আমরার পাশে দাড়াইছে আমি অত্যান্ত খুশি। এমপি সাবের এই ঋণ আমি কোন দিন শোধ করতাম পারতাম না। আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করি আল্লাহ যেন এমপি সাবেরে সুস্থ ভাবে বাচাইয়া রাখে।
উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো: হাসান বলেন বাখরনগর গ্রামে অগ্নিকান্ডে নিঃস্ব হওয়া মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলামের বিষয়টি সেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মাজহারুল ইসলাম মোবাইল ফোনে এমপি মহোদয় এবং আমাদেরকে অবহিত করেন। তারপরে এমপি স্যারের তাৎক্ষনিক নির্দেশে বাঙ্গরা বাজার থানা কৃষকলীগের আহ্বায়ক আবু মুসা আল কবির এবং আমি সেখানে তাদের প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেই এবং এমপি স্যারের ব্যাক্তিগত অর্থায়নে ১লক্ষ বিশ হাজার টাকা ব্যায়ে সম্পূর্ন নতুন একটি বসত ঘর তৈরী করে দেয়া হয়।
নতুন ঘর হস্তান্তর অনুষ্টানে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আহসানুল আলম সরকার কিশোর, উপজেলা নিবার্হী অফিসার অভিষেক দাশ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিন, অফিসার ইনচার্জ সাদেকুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আবুল খায়ের, উপজেলা কৃষকলীগের আহ্বায়ক কামাল উদ্দিন, যুগ্ম আহ্বায়ক মো: হাসান, বাঙ্গরা বাজার থানা কৃষকলীগের আহ্বায়ক আবু মুসা আল কবির, ইউপি সদস্য জালাল মিয়া, সাহেদুল হক সুজন, সেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক কামরুল হাসান, ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।
উলেখ্য গত ৭ই আগস্ট ভয়াবহ এক অগ্নিকান্ডে মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলামের বসত ঘরসহ সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।


এই বিভাগের আরো সংবাদ