ঢাকা ০১:২২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে পৃথক দু’টি হত‍্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার

যশোরে ইউসুফ আলী ও নাহিদ হত্যার ঘটনায় জড়িত ঘাতক দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে যশোর শহরে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত দুটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে। আজ দুপুর ১টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসেন।

তিন বলেন, গত ৩১ মার্চ রাতে যশোর সদর উপজেলার ঘুরুলিয়া গ্রামে ছোট ভাইয়ের হাতে খুন হন ইউনুস নামে এক যুবক। প্রতিবেশী নারীদের সাথে অশোভন আচরণ ও মাদক সেবনের বিরোধীতা করায় বড় ভাইকে ছুরিকাঘাতে করে পালিয়ে যায় ইউসুফ। ওই ঘটনায় আসামী ইউসুফকে সন্ধ্যার পর কোতয়ালী থানাধীন নাটুয়াপাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা।

তাদেরণ স্বীকারোক্তি মোতাবেক হত্যাকাজে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধার করা হয়।এছাড়া একই রাতে শহরের বারান্দী নাথপাড়ায় ভৈরব নদের পাড়ে সিনিয়র জুনিয়র নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে খুন হয় কিশোর নাহিদ। জিসান নামে অপর এক কিশোরসহ কয়েকজন হত্যাকাণ্ড ঘটায়। ঘটনার পর পরই পুলিশ আসামীদের ধরতে অভিযান শুরু করে। শনিবার রাত ১১টার দিকে সরাসরি হত্যায় জড়িত জিসান উদ্দিন ওরফে অন্তর (১৪) কে শহরের পুরাতন কসবা টালিখোলা এলাকা থেকে আটক করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে হত্যাকাজে ব্যবহৃত বার্মিজ চাকুটি উদ্ধার করা হয়। এ সময় মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক)সার্কেল জুয়েল ইমরান,কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম ও ডিবির (ওসি) রুপন কুমার সরকার উপস্থিত ছিলেন।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

যশোরে পৃথক দু’টি হত‍্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার

আপডেট সময় ০৮:১১:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩ এপ্রিল ২০২৩

যশোরে ইউসুফ আলী ও নাহিদ হত্যার ঘটনায় জড়িত ঘাতক দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে যশোর শহরে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত দুটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে। আজ দুপুর ১টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসেন।

তিন বলেন, গত ৩১ মার্চ রাতে যশোর সদর উপজেলার ঘুরুলিয়া গ্রামে ছোট ভাইয়ের হাতে খুন হন ইউনুস নামে এক যুবক। প্রতিবেশী নারীদের সাথে অশোভন আচরণ ও মাদক সেবনের বিরোধীতা করায় বড় ভাইকে ছুরিকাঘাতে করে পালিয়ে যায় ইউসুফ। ওই ঘটনায় আসামী ইউসুফকে সন্ধ্যার পর কোতয়ালী থানাধীন নাটুয়াপাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা।

তাদেরণ স্বীকারোক্তি মোতাবেক হত্যাকাজে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধার করা হয়।এছাড়া একই রাতে শহরের বারান্দী নাথপাড়ায় ভৈরব নদের পাড়ে সিনিয়র জুনিয়র নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে খুন হয় কিশোর নাহিদ। জিসান নামে অপর এক কিশোরসহ কয়েকজন হত্যাকাণ্ড ঘটায়। ঘটনার পর পরই পুলিশ আসামীদের ধরতে অভিযান শুরু করে। শনিবার রাত ১১টার দিকে সরাসরি হত্যায় জড়িত জিসান উদ্দিন ওরফে অন্তর (১৪) কে শহরের পুরাতন কসবা টালিখোলা এলাকা থেকে আটক করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে হত্যাকাজে ব্যবহৃত বার্মিজ চাকুটি উদ্ধার করা হয়। এ সময় মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক)সার্কেল জুয়েল ইমরান,কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম ও ডিবির (ওসি) রুপন কুমার সরকার উপস্থিত ছিলেন।