ঢাকা ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে রিকশা চালককে মারপিটের ঘটনায় সেই আইনজীবী সাময়িক বরখাস্ত

যশোর প্রতিনিধি: রিকশা চালককে প্রকাশ্যে মারপিটের ঘটনায় আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে যশোর জেলা আইনজীবী সমিতি।
গতকাল রোববার দুপুরে সমিতির নির্বাহী কমিটির জরুরি সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া, তাকে কেন স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে না সে বিষয়ে আগামী সাতদিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে আরতিকে। সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারলে তাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্তসহ তার বিরুদ্ধে বার কাউন্সিলে লিখিত অভিযোগ দেয়া হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু মোর্তজা ছোট।
গত ৭ মে জেলা জজ আদালতের পাশে আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষ এক রিকশা চালককে বেধড়ক মারপিট করেন। ওইসময় সেখানে উপস্থিত কয়েকজন তাকে থামানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। ওই রিকশা চালক হাত জোড় করে ক্ষমা প্রার্থনা করলেও আমলে নেননি আরতি।
আরতি তাকে জুতাপেটাও করেন। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।
সূত্র জানিয়েছে, আরতির এ ধরনের আচরণ থেকে রেহাই পাননি আইনজীবী-মক্কেলরাও। অভিযোগ উঠেছে ,সিনিয়র কয়েক আইনজীবীর ছত্রছায়ায় থাকার কারণে তিনি বেপরোয়া আচরণ করেন।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

যশোরে রিকশা চালককে মারপিটের ঘটনায় সেই আইনজীবী সাময়িক বরখাস্ত

আপডেট সময় ০২:৫১:৫১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ মে ২০২৩

যশোর প্রতিনিধি: রিকশা চালককে প্রকাশ্যে মারপিটের ঘটনায় আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে যশোর জেলা আইনজীবী সমিতি।
গতকাল রোববার দুপুরে সমিতির নির্বাহী কমিটির জরুরি সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া, তাকে কেন স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে না সে বিষয়ে আগামী সাতদিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে আরতিকে। সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারলে তাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্তসহ তার বিরুদ্ধে বার কাউন্সিলে লিখিত অভিযোগ দেয়া হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু মোর্তজা ছোট।
গত ৭ মে জেলা জজ আদালতের পাশে আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষ এক রিকশা চালককে বেধড়ক মারপিট করেন। ওইসময় সেখানে উপস্থিত কয়েকজন তাকে থামানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। ওই রিকশা চালক হাত জোড় করে ক্ষমা প্রার্থনা করলেও আমলে নেননি আরতি।
আরতি তাকে জুতাপেটাও করেন। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।
সূত্র জানিয়েছে, আরতির এ ধরনের আচরণ থেকে রেহাই পাননি আইনজীবী-মক্কেলরাও। অভিযোগ উঠেছে ,সিনিয়র কয়েক আইনজীবীর ছত্রছায়ায় থাকার কারণে তিনি বেপরোয়া আচরণ করেন।