ঢাকা ১২:২৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্তজার্তিক চিত্র প্রদর্শনী

  • যশোর প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় ০২:৩৪:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  • ১৮৬ বার পড়া হয়েছে

যশোরে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক চিত্র প্রদর্শনী ও শিল্প শিবির অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। প্রদর্শনীতে ভারত ও বাংলাদেশের ৮০ জন শিল্পী তাদের চিত্রকর্মসহ অংশ নেবেন। মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য দিয়েছেন প্রাচ্যসংঘ যশোরের প্রতিষ্ঠাতা বেনজীন খান। প্রাচ্যসংঘের সহযোগিতায় এই চিত্র প্রদর্শনী ও শিল্প শিবির অনুষ্ঠিত হবে সংগঠনের ক্যাম্পাস জুড়ে। মৈত্রী চিত্রভাষ নামে এই প্রদর্শনী ও শিল্প শিবিরের উদ্বোধন করবেন প্রয়াত তরুণ শিল্পী সোহেল প্রাণনের মা সালেহা বেগম। তিনি জানান, প্রদর্শনীর মূল আয়োজক সর্ব ভারতীয় সঙ্গীত ও সংস্কৃতি পরিষদ। এই সংগঠনটি ১৯৭৬ সালে ২৩ জানুয়ারি কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয়। সংগঠনটি নৃত্য, নাটক, সঙ্গীত এবং চারুকলা পরীক্ষার বোর্ড। যা পশ্চিমবঙ্গ দৃশ্যকলা আকাদেমি, রবীন্দ্রভারতীয় বিশ^বিদ্যালয় দ্বারা স্বীকৃত।

প্রাচ্য আকাদেমি ক্যাম্পাসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বেনজীন খান বলেন, মৈত্রী চিত্রভাষ ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধন তৈরী করবে। নানা বৈচিত্র ও কৃষ্টির ভান্ডার ভারতের সাথে আমাদের সংস্কৃতির আদান প্রদান ঘটবে। তাদের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে আমরা জানতে পারবো। তিনি বলেন, সমস্ত ট্যাবু ভেঙ্গে আমাদের বিশ^ মানুষের কাছে যেতে হবে। আমাদের সবার আগে মানুষ হতে হবে।সংবাদ সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন, কবি সাইদুর রহমান, আকসাদ সিদ্দিকী শৈবাল প্রমুখ।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

যশোরে ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্তজার্তিক চিত্র প্রদর্শনী

আপডেট সময় ০২:৩৪:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

যশোরে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক চিত্র প্রদর্শনী ও শিল্প শিবির অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। প্রদর্শনীতে ভারত ও বাংলাদেশের ৮০ জন শিল্পী তাদের চিত্রকর্মসহ অংশ নেবেন। মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য দিয়েছেন প্রাচ্যসংঘ যশোরের প্রতিষ্ঠাতা বেনজীন খান। প্রাচ্যসংঘের সহযোগিতায় এই চিত্র প্রদর্শনী ও শিল্প শিবির অনুষ্ঠিত হবে সংগঠনের ক্যাম্পাস জুড়ে। মৈত্রী চিত্রভাষ নামে এই প্রদর্শনী ও শিল্প শিবিরের উদ্বোধন করবেন প্রয়াত তরুণ শিল্পী সোহেল প্রাণনের মা সালেহা বেগম। তিনি জানান, প্রদর্শনীর মূল আয়োজক সর্ব ভারতীয় সঙ্গীত ও সংস্কৃতি পরিষদ। এই সংগঠনটি ১৯৭৬ সালে ২৩ জানুয়ারি কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয়। সংগঠনটি নৃত্য, নাটক, সঙ্গীত এবং চারুকলা পরীক্ষার বোর্ড। যা পশ্চিমবঙ্গ দৃশ্যকলা আকাদেমি, রবীন্দ্রভারতীয় বিশ^বিদ্যালয় দ্বারা স্বীকৃত।

প্রাচ্য আকাদেমি ক্যাম্পাসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বেনজীন খান বলেন, মৈত্রী চিত্রভাষ ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধন তৈরী করবে। নানা বৈচিত্র ও কৃষ্টির ভান্ডার ভারতের সাথে আমাদের সংস্কৃতির আদান প্রদান ঘটবে। তাদের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে আমরা জানতে পারবো। তিনি বলেন, সমস্ত ট্যাবু ভেঙ্গে আমাদের বিশ^ মানুষের কাছে যেতে হবে। আমাদের সবার আগে মানুষ হতে হবে।সংবাদ সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন, কবি সাইদুর রহমান, আকসাদ সিদ্দিকী শৈবাল প্রমুখ।