রাজশাহীতে ওয়ান ব্যাংকের ত্রাণ বিতরণ

ইউসুফ আলী চৌধুরী,রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীতে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ও প্রাদুর্ভাবের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। কোভিড-১৯ এ সারা দুনিয়ার ন্যায় বাংলাদেশও বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বাংলাদেশ এখন সংক্রমনে দশম স্থানে অবস্থান করছে। দেশের মানুষকে করোনা সংক্রমন থেকে রক্ষা করতে সরকার কঠোর লকডাউন দিয়েছে। এতে করে খেটে খাওয়া মানুষগুলো বেকার পড়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এছাড়াও মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোও এর বাহিরে নয়। এই সকল মানুষের কথা বিবেচনা করে সোমবার (১২ জুলাই) বেলা ১১টায় রাজশাহী রিভার ভিউ কালেক্টরেট স্কুল মাঠে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ও ওয়ান ব্যাংকের সৌজন্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে দু:স্থ অসহায় ও তৃতীয় লিঙ্গ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় তিনি বলেন, প্রতিদিন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানুষ মারা যাচ্ছে। রোববার সর্বোচ্চ ২৩০ জন বাংলাদেশে মারা গেছে। এর মধ্যে রাজশাহীতে ছিলো ১৯ জন। তিনি আরো বলেন, লকডাউন চলছে এর মধ্যেও বাড়ছে কোভিড-১৯ আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা সাথে বাড়ছে মৃত্যু। পরিস্থিতি নিয়ে আশাবাদী হতে পারছেন না কেউই। খোদ স্বাস্থ্য অধিদফতরের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে-এভাবে চলতে থাকলে খুব তাড়াতাড়ি পরিস্থিতি করুণ হয়ে যাবে। তিনি আরো বলেন, “সংক্রমণের সংখ্যা কিছুতেই কমছে না। যে হারে দেশে সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে আগামী সাত থেকে ১০ দিন পর আর হাসপাতালে বেড পাওয়া যাবে না। এ অবস্থায় অসহায় জনগণের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন তিনি। এই বাস্তবতায় জনগণকে অতি জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে না আসার জন্য পরামর্শ দেন। সেইসাথে শতভাগ মাস্ক এবং সরকারী নির্দেশনা মেনে চলার জন্য উপস্থিত জনগণসহ সকলের প্রতি আহবান জানান জেলা প্রশাসক। এছাড়াও অসহায় জনগণের মধ্যে খাদ্য সমাগ্রী বিতরণ করায় ওয়ান ব্যাংককে ধন্যবাদ জানান তিনি। পরে তিনি উপস্থিত ৬০০ জনের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরিফুল হক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) আবু আসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) কল্যান চৌধুরী, জেলা প্রশাসকের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট অভিজিৎ সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) নজরুল ইসলাম, জেলা ত্রান ও পুর্নবাসন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম ও ওয়ান ব্যাংক রাজশাহী শাখার ম্যানেজার আব্দুল মান্নানসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও ওয়ান ব্যাংকের কর্মকর্তাগণ।
এ সময় ওয়ান ব্যাংক রাজশাহী শাখার ম্যানেজার আব্দুল মান্নান বলেন, সকল দুর্যোগকালে ওয়ান ব্যাংক অসহায় মানুষের মাঝে আছে থাকবে। উল্লেখ্য ওয়ান ব্যাংক মোট ২১০০ জনের মধ্যে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবে। এরমধ্যে রাজশাহী মহানগরীতে ৬০০ জনের মধ্যে, এর পর আগামীকাল থেকে তিনদিন পবা, পুঠিয়া ও গোদাগাড়ীতে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবে বলে জানান ওয়ান ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এসময় ৬০০ পরিবারের প্রত্যেকে ১৫ কেজি চাল, এক লিটার সয়াবিন তেল, ১ কেজি ডাল, ৫ কেজি আলু, ২ কেজি আটা, ১ কেজি লবন, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ টি সাবান ও ১০০ গ্রাম মরিচের গুড়া প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *