ঢাকা ০৭:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাণীশংকৈলে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় আটক-২

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় ডিবি পুলিশের পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় ২ জন ব্যাক্তিকে আটক করে স্থানীয়রা।

বুধবার (২৪মে) হোসেনগাঁও ইউনিয়নের ডায়বেটিস মোড় সংলগ্ন সিন্দরপুর আদিবাসী এলাকায় ডিবি পুলিশের পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় ২ জন ব্যাক্তিকে আটক করে স্থানীয়রা।পরে থানা পুলিশকে খবর দিলে আটককৃতদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী থানাধীন ইউসুফ খলিফার ছেলে মুন্না হাসান (৩৫) ও একই এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে নুর মোহাম্মদ (৩৪) কে ভুয়া ডিবি পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক করা হয়েছে। তারা দুজনে রাণীশংকৈল উপজেলার হোসেনগাঁও ইউনিয়নের সুন্দর পুর গ্রামের আদিবাসী আমিন মার্ডির বাড়ীতে ভুয়া ডিবি পরিচয়ে অভিযান চালায়। এ সময় তারা আমিন মার্ডির পরিবারের লোকজনকে অবৈধ বাংলা মদের মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন অথবা মামলা না দিলে টাকা দিতে হবে বলে হুমকি দিয়ে ২৩ হাজার টাকা গ্রহণ করেন। ঐ সময় তাদের কথাবার্তা সন্দেহজনক মনে হলে থানা পুলিশকে অবগত করেন ভুক্তভোগীরা । পরে পুলিশ আসে তাদের গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে রাণীশংকৈল থানার অফিসার ইনচার্জ গুলফামুল ইসলাম(মন্ডল) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদের ভুয়া ডিবি পুলিশ সেজে চাঁদাবাজির সত্যতা পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

রাণীশংকৈলে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় আটক-২

আপডেট সময় ১২:৩২:২৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় ডিবি পুলিশের পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় ২ জন ব্যাক্তিকে আটক করে স্থানীয়রা।

বুধবার (২৪মে) হোসেনগাঁও ইউনিয়নের ডায়বেটিস মোড় সংলগ্ন সিন্দরপুর আদিবাসী এলাকায় ডিবি পুলিশের পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় ২ জন ব্যাক্তিকে আটক করে স্থানীয়রা।পরে থানা পুলিশকে খবর দিলে আটককৃতদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী থানাধীন ইউসুফ খলিফার ছেলে মুন্না হাসান (৩৫) ও একই এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে নুর মোহাম্মদ (৩৪) কে ভুয়া ডিবি পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক করা হয়েছে। তারা দুজনে রাণীশংকৈল উপজেলার হোসেনগাঁও ইউনিয়নের সুন্দর পুর গ্রামের আদিবাসী আমিন মার্ডির বাড়ীতে ভুয়া ডিবি পরিচয়ে অভিযান চালায়। এ সময় তারা আমিন মার্ডির পরিবারের লোকজনকে অবৈধ বাংলা মদের মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন অথবা মামলা না দিলে টাকা দিতে হবে বলে হুমকি দিয়ে ২৩ হাজার টাকা গ্রহণ করেন। ঐ সময় তাদের কথাবার্তা সন্দেহজনক মনে হলে থানা পুলিশকে অবগত করেন ভুক্তভোগীরা । পরে পুলিশ আসে তাদের গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে রাণীশংকৈল থানার অফিসার ইনচার্জ গুলফামুল ইসলাম(মন্ডল) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদের ভুয়া ডিবি পুলিশ সেজে চাঁদাবাজির সত্যতা পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।