ঢাকা ০৯:১২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo রূপসায় ইটভাটার মাটিতে সড়ক বেহাল দশা : হালকা বৃষ্টিতে একের পর এক দূর্ঘটনা Logo জুয়েলারি খাতে আরোপিত শুল্ক হার কমানো ও আর্থিক প্রণোদনার প্রস্তাব বাজুসের Logo বাড়ির পাশে রাস্তার ঢালাই ঢালু হওয়ার অভিযোগে স্ত্রিকে কুপিয়ে জখম Logo দেবিদ্বারে ১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক উন্নয়নের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন Logo বড়পুকুরিয়া কয়লাখনিতে স্থানীয়দের ক্ষতিপূরণের দাবি Logo রূপগঞ্জে পূর্বশত্রুতার জেরে দুই জনকে পিটিয়ে আহত : থানায় পাল্টা পাল্টি অভিযোগ Logo শিশুর খতনায় অতিরিক্ত রক্তপাত, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারকে বদলি Logo বরুড়া উপজেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ১৫ সদস্যের কমিটি অনুমোদন Logo যশোরে ট্রাক ও মোটরসাইকেলে মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত -২, ঘাতক ট্রাক আটক Logo বনিকপাড়া’র বার্ষিক মহোৎসব শুরু

লাকসামে ট্রেনে কাটা পড়ে স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু

লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: কুমিল্লার লাকসামে ট্রেনে কাটা পড়ে এক স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে লাকসাম পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে ঢাকা-লাকসাম-নোয়াখালী রেলপথে।
প্রত‍্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার (১৯ মে) নোয়াখালী থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে লাকসাম পৌরসভা কার্যালয় এলাকা অতিক্রম করার সময় হঠাৎ করে ওই স্কুল শিক্ষিকা রেললাইনের উপর উঠে যায়। এতেই ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে খন্ড বিখন্ড হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়।
নিহত ওই শিক্ষিকার নাম রওশন বিনতে শফিক (৪৪)। তিনি লাকসাম সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। তিনি পৌরএলাকার ৪নং ওর্য়াডের হাউজিং এস্টেটে ভাড়া বাসায় থাকেন।
বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, নিহত ওই স্কুল শিক্ষিকা পারিবারিক ভাবে দুঃচিন্তাগ্রস্থ ছিলেন। মাসখানেক আগেও তিনি ট্রেনের নিচে আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। স্থানীয় লোকজন ওই সময় তাকে প্রানে বাঁচিয়ে ছিলেন।ওই ঘটনায় তার স্কুলের সহকর্মী বিষয়টি জেনে তাকে বুঝিয়ে ছিলেন।
সূত্রটি আরও জানায়, চাঁদপুর জেলায় ওই শিক্ষিকার আগে একটি বিয়ে হয়েছিল এবং ওই স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদও ঘটে। ওই সংসারে তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। পরবর্তীতে তিনি মনোহরগঞ্জ উপজেলার খিলা এলাকার মোতালেব হোসেন নামে একব‍্যক্তিকে বিয়ে করেন। দ্বিতীয় বিয়ের পরও তার দাম্পত্য জীবন ভালো কাটছিলনা। এনিয়ে স্বামীর সঙ্গে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়ার কারনে মানসিক ও শারীরিকভাবে তিনি বির্পযস্ত হয়ে পড়েন। এসব কারণেই তিনি ট্রেনের নিচে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অনেকে ধারণা করছেন।
নিহত ওই স্কুল শিক্ষিকার বাবার বাড়ি মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাতিমারা গ্রামে। তার বাবার নাম মরহুম মাষ্টার শফিকুর রহমান।
এ বিষয়ে লাকসাম জিআরপি থানার ওসি জসিম উদ্দিন খোন্দকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় একটি অপমৃত‍্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপসায় ইটভাটার মাটিতে সড়ক বেহাল দশা : হালকা বৃষ্টিতে একের পর এক দূর্ঘটনা

লাকসামে ট্রেনে কাটা পড়ে স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু

আপডেট সময় ১০:২২:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩

লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: কুমিল্লার লাকসামে ট্রেনে কাটা পড়ে এক স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে লাকসাম পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে ঢাকা-লাকসাম-নোয়াখালী রেলপথে।
প্রত‍্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার (১৯ মে) নোয়াখালী থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে লাকসাম পৌরসভা কার্যালয় এলাকা অতিক্রম করার সময় হঠাৎ করে ওই স্কুল শিক্ষিকা রেললাইনের উপর উঠে যায়। এতেই ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে খন্ড বিখন্ড হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়।
নিহত ওই শিক্ষিকার নাম রওশন বিনতে শফিক (৪৪)। তিনি লাকসাম সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। তিনি পৌরএলাকার ৪নং ওর্য়াডের হাউজিং এস্টেটে ভাড়া বাসায় থাকেন।
বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, নিহত ওই স্কুল শিক্ষিকা পারিবারিক ভাবে দুঃচিন্তাগ্রস্থ ছিলেন। মাসখানেক আগেও তিনি ট্রেনের নিচে আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। স্থানীয় লোকজন ওই সময় তাকে প্রানে বাঁচিয়ে ছিলেন।ওই ঘটনায় তার স্কুলের সহকর্মী বিষয়টি জেনে তাকে বুঝিয়ে ছিলেন।
সূত্রটি আরও জানায়, চাঁদপুর জেলায় ওই শিক্ষিকার আগে একটি বিয়ে হয়েছিল এবং ওই স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদও ঘটে। ওই সংসারে তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। পরবর্তীতে তিনি মনোহরগঞ্জ উপজেলার খিলা এলাকার মোতালেব হোসেন নামে একব‍্যক্তিকে বিয়ে করেন। দ্বিতীয় বিয়ের পরও তার দাম্পত্য জীবন ভালো কাটছিলনা। এনিয়ে স্বামীর সঙ্গে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়ার কারনে মানসিক ও শারীরিকভাবে তিনি বির্পযস্ত হয়ে পড়েন। এসব কারণেই তিনি ট্রেনের নিচে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অনেকে ধারণা করছেন।
নিহত ওই স্কুল শিক্ষিকার বাবার বাড়ি মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাতিমারা গ্রামে। তার বাবার নাম মরহুম মাষ্টার শফিকুর রহমান।
এ বিষয়ে লাকসাম জিআরপি থানার ওসি জসিম উদ্দিন খোন্দকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় একটি অপমৃত‍্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।