বিজ্ঞাপন
মুক্তিকামী জনতার দৈনিক 'মুক্তির লড়াই' পত্রিকার জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে ব্যুরো চীফ, প্রতি জেলা ও উপজেলার একজন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আবেদন করুন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ কামরুজ্জামান জনি- সম্পাদক, মুক্তির লড়াই। ইমেইলঃ jobmuktirlorai@gmail.com । ধন্যবাদ ।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের উদ্যোগে বেগম রোকেয়া দিবস পালিত

Muktir Lorai / ১০৮ বার ভিউ করা হয়েছে
বাংলাদেশ সময় বুধবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২০

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
৯ ডিসেম্বর রোকেয়া দিবস স্মরণে আলোচনাসভা ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীত সভাপতি আল কাদেরী জয়ের সভাপতিত্বে সকাল ১১ টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শুরু হয় বেগম রোকেয়ার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের কেন্দ্রীয় সংগঠক মুক্তা বাড়ৈ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শোভন রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য লাবনী বন্যা, বনানী থানা শাখার আহ্বায়ক রিয়াজ মাহমুদ। বক্তারা বলেন, “বেগম রোকেয়া ছিলেন বাংলা রেনেসাঁর অন্যতম পুরোধা একজন ব্যাক্তিত্ব। তিনি একদিকে যেমন সমাজে পিছিয়ে থাকা নারী সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য কঠোর সংগ্রাম করেছেন, অন্যদিকে দেখিয়েছেন, নারী মুক্তির লড়াই সামগ্রিকভাবে সমাজ বদলের লড়াই থেকে বিচ্ছিন্ন কিছু নয়। আজকে আমরা দেখছি সরকার নামকাওয়াস্তে রোকেয়া দিবস পালন করছে, পদক পদবী দিয়ে আনুষ্ঠানিকতার মধ্যেই সে পালন সীমাবদ্ধ। বেগম রোকেয়ার চিন্তা সমাজের প্রত্যেক স্তরে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য তার কোন উদ্যোগ নেই, এমনকি তার স্মৃতিটুকুও রক্ষার ব্যাপারে কোন মাথা ব্যাথা নেই। তাই আজকে আমরা যারা সমাজ বদলের লড়াইয়ে শামিল হয়েছি, তাদেরকে আরও ব্যাপকতার সাথে বেগম রোকেয়ার জীবন সংগ্রাম জনগণের কাছে নিয়ে যেতে হবে।


এই বিভাগের আরো সংবাদ
Translate »
Translate »