ঢাকা ১১:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরাইলে ফসলি জমি থেকে মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার উচালিয়াপাড়া এলাকার ফসলি জমি থেকে আব্দুল হামিদ (৫৮) নামে এক জনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার উচালিয়াপাড়া (উওরপাড়া) ফসলি জমি থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
নিহত আব্দুল হামিদ উচালিয়াপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল আলিমের দ্বিতীয় ছেলে। সে সৌদি প্রবাসী হাবিবের বড় ভাই। নিহত আব্দুল হামিদ তিন সন্তানের জনক, তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার দিবাগত আনুমানিক ১১ টার দিকে আব্দুল হামিদের মুঠোফোন নম্বরে কে বা কারা ফোন দিলে হামিদ ঘর থেকে বেরিয়ে আসে। রাতে আর বাড়ি ফিরে নাই মুঠোফোনে বার বার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি। পরে আজ বৃহস্পতিবার সকালে উচালিয়াপাড়া তার বাড়ি থেকে কয়েকশত গজ উত্তরে ফসলি জমিতে নিহতের মরদেহ সম্পুর্ণ কাঁদামাখা অবস্থায় পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। পরে নিহতের পরিবারের লোকজন আবদুল হামিদ কে সনাক্ত করে।

পরে সরাইল থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

সরাইল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে বিস্তারিত জানা যাবে। নিহতের পরিবারের লোকজন মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

আপলোডকারীর তথ্য

সরাইলে ফসলি জমি থেকে মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় ০৮:২১:৪৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার উচালিয়াপাড়া এলাকার ফসলি জমি থেকে আব্দুল হামিদ (৫৮) নামে এক জনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার উচালিয়াপাড়া (উওরপাড়া) ফসলি জমি থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
নিহত আব্দুল হামিদ উচালিয়াপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল আলিমের দ্বিতীয় ছেলে। সে সৌদি প্রবাসী হাবিবের বড় ভাই। নিহত আব্দুল হামিদ তিন সন্তানের জনক, তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার দিবাগত আনুমানিক ১১ টার দিকে আব্দুল হামিদের মুঠোফোন নম্বরে কে বা কারা ফোন দিলে হামিদ ঘর থেকে বেরিয়ে আসে। রাতে আর বাড়ি ফিরে নাই মুঠোফোনে বার বার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি। পরে আজ বৃহস্পতিবার সকালে উচালিয়াপাড়া তার বাড়ি থেকে কয়েকশত গজ উত্তরে ফসলি জমিতে নিহতের মরদেহ সম্পুর্ণ কাঁদামাখা অবস্থায় পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। পরে নিহতের পরিবারের লোকজন আবদুল হামিদ কে সনাক্ত করে।

পরে সরাইল থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

সরাইল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে বিস্তারিত জানা যাবে। নিহতের পরিবারের লোকজন মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।