ঢাকা ১২:৩৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরাইলে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন হয়েছে। উপজেলার এক ইটভাটায় সন্তানের সামনে মাকে খুন করার ঘটনা ঘটে। পারিবারিক কলহের কারণে নয়ন তারা (৩৫) নামে এক নারীকে কুপিয়ে খুন করেছে তার স্বামী চাঁন মোস্তফা(৪০)।

শনিবার (১৩ মে) ভোর রাত আনুমানিক ৩ টার দিকে উপজেলার ধরন্তি এলাকায় “দি নিউ আশা ব্রিক ফিল্ডে’ এ ঘটনা ঘটে। ইটভাটার অন্য শ্রমিকরা ঘাতক চাঁন মোস্তফা(৪০)কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

স্থানীয় ও ইটভাটার শ্রমিকরা জানান, চাঁন মোস্তফা ধরন্তি এলাকার দি নিউ আশা ব্রিক ফিল্ডে শ্রমিকের কাজ করতেন। সেখানে অন্য শ্রমিকদের মতো ছাউনি করা ঘরে স্ত্রী নয়ন তারা ও একমাত্র মেয়ে তাজিন (১০) কে নিয়ে বসবাস করতেন।

শুক্রবার রাতে পারিবারিক কলহ নিয়ে চাঁন মোস্তফা ও তার স্ত্রী নয়ন তারার মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। তাদের ঝগড়ার সময় ঘুম থেকে জেগে যায় মেয়ে তাজিন। এক পর্যায়ে সন্তানের সামনেই চাঁন মোস্তফা দা দিয়ে কোপাতে থাকে তার স্ত্রী নয়ন তারাকে। এ অবস্থায় মেয়ে তাজিন ঘর থেকে বেরিয়ে অন্য শ্রমিকদের বিষয়টি জানায়। পরে শ্রমিকরা গিয়ে দেখেন ততক্ষণে নয়ন তারার রক্তাক্ত নিথর দেহ মেঝেতে পড়ে আছে। পরে চাঁন মোস্তফাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসাইন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সরাইলে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

আপডেট সময় ০৬:০৮:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন হয়েছে। উপজেলার এক ইটভাটায় সন্তানের সামনে মাকে খুন করার ঘটনা ঘটে। পারিবারিক কলহের কারণে নয়ন তারা (৩৫) নামে এক নারীকে কুপিয়ে খুন করেছে তার স্বামী চাঁন মোস্তফা(৪০)।

শনিবার (১৩ মে) ভোর রাত আনুমানিক ৩ টার দিকে উপজেলার ধরন্তি এলাকায় “দি নিউ আশা ব্রিক ফিল্ডে’ এ ঘটনা ঘটে। ইটভাটার অন্য শ্রমিকরা ঘাতক চাঁন মোস্তফা(৪০)কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

স্থানীয় ও ইটভাটার শ্রমিকরা জানান, চাঁন মোস্তফা ধরন্তি এলাকার দি নিউ আশা ব্রিক ফিল্ডে শ্রমিকের কাজ করতেন। সেখানে অন্য শ্রমিকদের মতো ছাউনি করা ঘরে স্ত্রী নয়ন তারা ও একমাত্র মেয়ে তাজিন (১০) কে নিয়ে বসবাস করতেন।

শুক্রবার রাতে পারিবারিক কলহ নিয়ে চাঁন মোস্তফা ও তার স্ত্রী নয়ন তারার মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। তাদের ঝগড়ার সময় ঘুম থেকে জেগে যায় মেয়ে তাজিন। এক পর্যায়ে সন্তানের সামনেই চাঁন মোস্তফা দা দিয়ে কোপাতে থাকে তার স্ত্রী নয়ন তারাকে। এ অবস্থায় মেয়ে তাজিন ঘর থেকে বেরিয়ে অন্য শ্রমিকদের বিষয়টি জানায়। পরে শ্রমিকরা গিয়ে দেখেন ততক্ষণে নয়ন তারার রক্তাক্ত নিথর দেহ মেঝেতে পড়ে আছে। পরে চাঁন মোস্তফাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসাইন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।