ঢাকা ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়ক অবরুদ্ধ করে রেখেছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা Logo ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা’র সহধর্মীনি এডভোকেট সিগমা হুদার ইন্তেকাল Logo আমতলীতে ২য় শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আটক Logo বাঘাইছড়িতে ছাত্রলীগের প্রতিবাদ মিছিল Logo সরাইলে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ Logo ভাঙ্গায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-৩ আহত ৪০ Logo রূপসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন Logo শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ Logo সদরপুরে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া Logo যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাসিম এর মুত‍্যু বার্ষিকী পালিত

সাংবাদিক শিমুল হত্যার ৬ বছরেও শুরু হয়নি বিচারকাজ

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক শিমুল হত্যাকাণ্ডের বিচার শুরুর দাবি জানিয়েছেন উপজেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা।

শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সাংবাদিক শিমুল হত্যাকাণ্ডের ৬ষ্ঠ বার্ষিকী উপলক্ষে শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে বক্তারা বলেন, ছয় বছর পেরিয়ে গেলেও নানা জটিলতার কারণে শিমুল হত্যার বিচার শুরু হয়নি।

এ হত্যা মামলার সব প্রতিবন্ধকতা দূর করে অবিলম্বে রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতে বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জোর দাবি জানান গণমাধ্যমকর্মীরা।

শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মুস্তাক আহমেদের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন, দৈনিক সমকালের সহযোগী সম্পাদক সবুজ ইউনুস।অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আতাউর রহমান পিন্টু, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল কাশেম, সহ-সভাপতি এমএ জাফর লিটন, বিআরডিবি চেয়ারম্যান ভিপি লুৎফর রহমান, সাংবাদিক শফিউল হাসান চৌধুরী লাইফ, আতিকুল ইসলাম ও কল্যাণ ভৌমিক।

এ সময় নিহত শিমুলের স্ত্রী নুরুন নাহার, ছেলে আল নোমান নাজ্জাশি সাদিক, মেয়ে তামান্না-ই-ফাতেমা, শাহজাদপুর সমকাল প্রতিনিধি কোরবান আলী লাবলু, সাংবাদিক মুমীদুজ্জামান জাহান, এম এ জাফর লিটনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুরের মণিরামপুরে মেয়র হালিমুল হক মিরুর বাড়ির সামনে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘষের্র ছবি তুলতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন সাংবাদিক শিমুল। পরদিন ৩ ফেব্রুয়ারি উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মারা যান তিনি। এ ঘটনায় দেশব্যাপী তীব্র ক্ষোভে ফুঁসে ওঠে সাংবাদিক সমাজ। তখন থেকেই শাহজাদপুরের সাংবাদিকরা ধারাবাহিক ভাবে খুনিদের বিচার দাবিতে আন্দোলন করে আসছে।

শুক্রবার দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন শাহজাদপুরের কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ ও শিমুলের পরিবারের সদস্যরা। এদিন সকালে শাহজাদপুর প্রেসক্লাব চত্বরে জাতীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল ১০টায় আব্দুল হাকিম শিমুলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, নিহত সাংবাদিক শিমুলের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এরপর শাহজাদপুর প্রেসক্লাব থেকে শাহজাদপুরে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ, সংস্কৃতিকর্মী এবং নিহত সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের স্বজনদের নিয়ে একটি শোক র‌্যালি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার প্রেসক্লাব চত্বরে ফিরে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

আপলোডকারীর তথ্য

কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়ক অবরুদ্ধ করে রেখেছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা

সাংবাদিক শিমুল হত্যার ৬ বছরেও শুরু হয়নি বিচারকাজ

আপডেট সময় ১২:২৪:৪৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক শিমুল হত্যাকাণ্ডের বিচার শুরুর দাবি জানিয়েছেন উপজেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা।

শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সাংবাদিক শিমুল হত্যাকাণ্ডের ৬ষ্ঠ বার্ষিকী উপলক্ষে শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে বক্তারা বলেন, ছয় বছর পেরিয়ে গেলেও নানা জটিলতার কারণে শিমুল হত্যার বিচার শুরু হয়নি।

এ হত্যা মামলার সব প্রতিবন্ধকতা দূর করে অবিলম্বে রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতে বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জোর দাবি জানান গণমাধ্যমকর্মীরা।

শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি বিমল কুমার কুন্ডুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মুস্তাক আহমেদের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন, দৈনিক সমকালের সহযোগী সম্পাদক সবুজ ইউনুস।অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আতাউর রহমান পিন্টু, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল কাশেম, সহ-সভাপতি এমএ জাফর লিটন, বিআরডিবি চেয়ারম্যান ভিপি লুৎফর রহমান, সাংবাদিক শফিউল হাসান চৌধুরী লাইফ, আতিকুল ইসলাম ও কল্যাণ ভৌমিক।

এ সময় নিহত শিমুলের স্ত্রী নুরুন নাহার, ছেলে আল নোমান নাজ্জাশি সাদিক, মেয়ে তামান্না-ই-ফাতেমা, শাহজাদপুর সমকাল প্রতিনিধি কোরবান আলী লাবলু, সাংবাদিক মুমীদুজ্জামান জাহান, এম এ জাফর লিটনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুরের মণিরামপুরে মেয়র হালিমুল হক মিরুর বাড়ির সামনে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘষের্র ছবি তুলতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন সাংবাদিক শিমুল। পরদিন ৩ ফেব্রুয়ারি উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মারা যান তিনি। এ ঘটনায় দেশব্যাপী তীব্র ক্ষোভে ফুঁসে ওঠে সাংবাদিক সমাজ। তখন থেকেই শাহজাদপুরের সাংবাদিকরা ধারাবাহিক ভাবে খুনিদের বিচার দাবিতে আন্দোলন করে আসছে।

শুক্রবার দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন শাহজাদপুরের কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ ও শিমুলের পরিবারের সদস্যরা। এদিন সকালে শাহজাদপুর প্রেসক্লাব চত্বরে জাতীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল ১০টায় আব্দুল হাকিম শিমুলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, নিহত সাংবাদিক শিমুলের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এরপর শাহজাদপুর প্রেসক্লাব থেকে শাহজাদপুরে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ, সংস্কৃতিকর্মী এবং নিহত সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের স্বজনদের নিয়ে একটি শোক র‌্যালি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার প্রেসক্লাব চত্বরে ফিরে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।