ঢাকা ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo সাংবাদিকতা নিয়ে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের বিবৃতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান Logo রূপসায় ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত Logo আমতলীতে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠানে আসার পথে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত Logo বরুড়ায় আ.লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত Logo চাঁপাই নবাবগঞ্জে ১৫০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার সহ দুইজন গ্রেফতার Logo সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে কালীগঞ্জে মানববন্ধন Logo গলাচিপায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন Logo তোমাকে যে ধরতে আমি চাই Logo নওগাঁ থেকে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ তিন মাদক কারবারি গ্রেফতার Logo মুরাদনগরে রোহিঙ্গাকে জন্ম নিবন্ধন করে দেওয়ায় ইউপি সচিব গ্রেফতার

৭২ ঘন্টার অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করলেন ৫ দলীয় বাম জোট

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

৩০ অক্টোবর সোমবার বিকাল ৫ টায়, ৫ দলীয় বাম জোটের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ১৪ পুরানা পল্টন দারুস সালাম ভবনের ৯ম তলায় সংবাদ সম্মেলনে ৩১ অক্টোবর সকাল থেকে ২ নভেম্বর সন্ধ্যা পর্যন্ত সারাদেশ ব্যাপী সর্বাত্মক অবরোধ এর কর্মসূচী ঘোষণা দেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জোটের সমন্বয়ক বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) র সভাপতি কমরেড ডা. এম এ সামাদ।

তিনি বলেন, বিরোধী দলের সমাবেশে হামলা দেশব্যাপী গ্রেফতার মামলা দিয়ে দেশে এক অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। ফ্যাসিবাদী সরকার ২০১৪ ও ২০১৮ সালে ভোট ডাকাতি করে জোর জবরদস্তি করে ক্ষমতা দখল করে রেখেছে। আবারও সামনে ২০২৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন একতরফা ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতা দখলে রাখতে চায়। দেশের ১৬ কোটি জনগণের মৌলিক অধিকার ভোটের অধিকার হরণ করে রেখেছে। লুটপাট দুর্নীতি অর্থ পাচার করে দেশকে ধ্বংস করে দিয়েছে। দেশের সকল রাজনৈতিক দল ও ১৬ কোটি জনগণ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন চায় এই সরকারের পদত্যাগ চায়।

তিনি আরও বলেন, মির্জা ফখরুল সহ বিরোধীদলের গ্রেফতারকৃত সকল নেতাকর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে। আমরা এই সরকারের পদত্যাগ দল নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে ৩১ অক্টোবর সোমবার সকাল ৬ টা থেকে ২ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬ পর্যন্ত সারাদেশে সর্বাত্মক অবরোধ কর্মসূচী ঘোষণা করছি এবং প্রিয় দেশবাসীকে এই কর্মসূচী সফল করতে রাজপথে নামার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সোশ্যালিস্ট পার্টির সভাপতি কমরেড শাহীন আহমেদ, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (মার্কসবাদী)’র সভাপতি কমরেড আলমগীর হোসেন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মাওবাদী) সভাপতি কমরেড মোস্তফা আল খালিদ বিন মাহমুদ, বাংলাদেশের সমতা পার্টির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড সামছুল হক সরকার প্রমুখ।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিকতা নিয়ে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের বিবৃতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান

৭২ ঘন্টার অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করলেন ৫ দলীয় বাম জোট

আপডেট সময় ০৭:১৮:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

৩০ অক্টোবর সোমবার বিকাল ৫ টায়, ৫ দলীয় বাম জোটের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ১৪ পুরানা পল্টন দারুস সালাম ভবনের ৯ম তলায় সংবাদ সম্মেলনে ৩১ অক্টোবর সকাল থেকে ২ নভেম্বর সন্ধ্যা পর্যন্ত সারাদেশ ব্যাপী সর্বাত্মক অবরোধ এর কর্মসূচী ঘোষণা দেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জোটের সমন্বয়ক বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) র সভাপতি কমরেড ডা. এম এ সামাদ।

তিনি বলেন, বিরোধী দলের সমাবেশে হামলা দেশব্যাপী গ্রেফতার মামলা দিয়ে দেশে এক অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। ফ্যাসিবাদী সরকার ২০১৪ ও ২০১৮ সালে ভোট ডাকাতি করে জোর জবরদস্তি করে ক্ষমতা দখল করে রেখেছে। আবারও সামনে ২০২৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন একতরফা ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতা দখলে রাখতে চায়। দেশের ১৬ কোটি জনগণের মৌলিক অধিকার ভোটের অধিকার হরণ করে রেখেছে। লুটপাট দুর্নীতি অর্থ পাচার করে দেশকে ধ্বংস করে দিয়েছে। দেশের সকল রাজনৈতিক দল ও ১৬ কোটি জনগণ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন চায় এই সরকারের পদত্যাগ চায়।

তিনি আরও বলেন, মির্জা ফখরুল সহ বিরোধীদলের গ্রেফতারকৃত সকল নেতাকর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে। আমরা এই সরকারের পদত্যাগ দল নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে ৩১ অক্টোবর সোমবার সকাল ৬ টা থেকে ২ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬ পর্যন্ত সারাদেশে সর্বাত্মক অবরোধ কর্মসূচী ঘোষণা করছি এবং প্রিয় দেশবাসীকে এই কর্মসূচী সফল করতে রাজপথে নামার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সোশ্যালিস্ট পার্টির সভাপতি কমরেড শাহীন আহমেদ, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (মার্কসবাদী)’র সভাপতি কমরেড আলমগীর হোসেন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মাওবাদী) সভাপতি কমরেড মোস্তফা আল খালিদ বিন মাহমুদ, বাংলাদেশের সমতা পার্টির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড সামছুল হক সরকার প্রমুখ।