ব্রিটিশ কলোম্বিয়ায় ভয়াবহ তাপপ্রবাহে ২৩০ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কানাডার ব্রিটিশ কলোম্বিয়ায় ভয়াবহ তাপপ্রবাহে ২৩০ জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনাকে ‘নজিরবিহীন’ উল্লেখ করে শহরের প্রধান কর্মকর্তা লিসা ল্যাপোয়েন্টি স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৯ জুন) পর্যন্ত বলেন, তাপমাত্রা বাড়ার রেকর্ড ছাড়িয়েছে।

তিনি জানান, গত সপ্তাহে তাপপ্রবাহ শুরু হওয়ার পর থেকে এখানে মৃত্যুর সংখ্যক উল্লেখযোগ্য বেড়েছে। সিএনএনের খবর।
সাধারণত চার দিনে ১৩০ জনের মৃত্যুর রিপোর্ট আসে লিসা ল্যাপোয়েন্টির অফিসে। কিন্তু গত শুক্র থেকে সোমবার পর্যন্ত সেখানে ২৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে কেন এত মৃত্যু বেড়েছে, তা নিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।
এক বিবৃতিতে বলা হয়, বিশেষ করে দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থ, শিশু ও নবজাতকেরা মারা যাচ্ছে। ভ্যাংকুভার, বার্নাবে ও সুরেইতে হঠাৎ করে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে।
ভ্যাংকুভার পুলিশের কর্মকর্তারা বলেন, শুক্রবার তাপপ্রবাহ শুরু হওয়ার পর হঠাতই ৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে একদিনেই ২০ জন মারা যান।

এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশর গণমাধ্যম কর্মকর্তা সার্জেন্ট স্টিভ অ্যাডিসন বলেন, ভ্যাংকুভারে এমন তাপপ্রবাহের অভিজ্ঞতা আমাদের এর আগে কখনো হয়নি।
ভ্যাংকুভারের কেন্দ্রস্থলে শনিবার ৯৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি, রোববার ৯৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি ও সোমবার ১০১ দশমিক পাঁচ ডিগ্রি তাপমাত্র রেকর্ড করা হয়েছে। সোমবার সুরির কাছে আচমকা ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে রয়েল কানাডিয়ান মাউন্টেন পুলিশ।
ব্রিটিশ কলম্বিয়ার ভ্যাংকুভার শহরের বার্নাবির পুলিশ সিপিএল মাইক কালাঞ্জ বলেছেন, প্রতিবেশীদের দিকে খেয়াল রাখুন, পরিবারের সদস্যদের দিকে খেয়াল রাখুন, বয়স্ক ব্যক্তি যাদের চেনেন তাদের খোঁজ রাখুন। এই আবহাওয়া আমাদের সমাজের দুর্বল সদস্যদের জন্য প্রাণঘাতী হতে পারে, বিশেষ করে যারা বৃদ্ধ ও যারা বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। তাদের দিকে খেয়াল রাখা জরুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *