মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসি বাংলাদেশিদের সহজ সেবা প্রদানের লক্ষে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধন

মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসি বাংলাদেশিদের সহজ সেবা প্রদানের লক্ষে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’ এর ব্যানারে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধন করেছে বাংলাদেশ হাইকমিশন। স্থানীয় সময় বুধবার (১০ মার্চ) এই ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়।

হাই কমিশনের উপ-হাইকমিশনার ও মিনিস্টার মো. খোরশেদ এ খাস্তগিরের সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল এই উদ্বোধনী সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব মিজ মাশফী বিনতে শামস।

হাই কমিশনার জনাব মো. গোলাম সারওয়ার তার স্বাগত বক্তব্যে প্ল্যাটফর্মটির সংক্ষিপ্ত পটভূমি তুলে ধরে প্রবাসীদের সুবিধার্থে এটি ব্যবহারের পরামর্শ দেন।

তিনি আরো বলেন, মালয়েশিয়ায় বসবাসরত বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশির সাথে সংযোগ বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ হাই কমিশনের নিজস্ব ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘বাংলা টাইগার ডিজিটাল’ তৈরি করেছে। এই প্রয়াসে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘ডটলাইনস’ হাই কমিশনের টেকনোলজি পার্টনার হিসেবে কাজ করছে।

এছাড়াও প্রবাসীরা এই প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করে সহজেই পাসপোর্ট, বৈধকরণ, চাকরির আবেদনসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা অনায়াসে গ্রহণ করতে পারবে। সেবা প্রার্থীরা সম্পূর্ণ বিনা পয়সায় এই সেবা নিতে পারবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার বক্তব্যে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে প্রবাসীদের বিশাল অবদানের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি প্রবাসীদের কল্যাণে বর্তমান সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন উদ্যোগের কথাও তুলে ধরেন। এছাড়াও তিনি এ ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করায় হাইকমিশনকে ধন্যবাদ জানান।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব মিজ মাশফী বিনতে শামস বলেন, এই প্ল্যাটফর্মটি প্রধানমন্ত্রীর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার লক্ষ্যে জনসেবা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে একটি উদাহরণ। হাইকমিশনের সময়োচিত উদ্যোগের ফলে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী উপকৃত হবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এই প্রয়াসের মাধ্যমে কুয়ালালামপুরস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন বিদেশে বাংলাদেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল মিশন হিসাবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে এক ধাপ এগিয়ে গেল। হাই কমিশন ভবিষ্যতে মোবাইল টেলিফোনি, স্বাস্থ্যসেবা, রেমিটেন্সের মতো নতুন নতুন সেবা যুক্ত করার পরিকল্পনা করছে।

এছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলা টাইগার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের উপর নির্মিত অডিও-ভিজ্যুয়ালও প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিক্যাব) এর সাংবাদিকদের সাথে হাই কমিশনার এ বিষয়ে মত বিনিময় করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *