কুমিল্লা গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টারঃ রমজান ও লকডাউনেও থেমে নেই সীমান্তের মাদক কারবারিদের দৌরাত্ম্য। কুমিল্লা জেলাকে মাদক মুক্ত করার জন্য পুলিশ সুপার, কুমিল্লা মহোদয় মাদকের বিরুদ্ধে যে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তারই ধারাবাহিকতায় পুলিশ সুপার মহোদয়ের সার্বিক দিক নির্দেশনায় কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা শাখার এলআইসি টিম এর চৌকস কর্মকর্তা পরিমল দাস পিপিএম এর নেতৃত্বে পৃথক একটি অভিযান চালিয়ে ১০ কেজি গাঁজাসহ দুই জন মাদক কারবারিকে আটক করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা শাখার পরিমল দাস জানান কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার) মহোদয় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন।

জেলা পুলিশ সুপার এর ঘোষনাকে বাস্তবে রপদানের লক্ষ্যে নিয়মিত অভিযানের অংশ অভিযান চালিয়ে ১০ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন ও আমেনা বেগম কে কুমিল্লা কোতয়ালী থানাধীন ধর্মসাগর পশ্চিমপাড়েরর চেয়ারম্যান গলির একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। আটককৃত আসামী ইকবাল হোসেন (৪৩) কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার চড়ানল গ্রামের মৃত আলফু মিয়ার ছেলে এবং আসামী আমেনা বেগম (৩৫) একই উপজেলার উত্তর গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের মেয়ে।

জেলা গোয়েন্দা শাখার এলআইসি টিমের চৌকস কর্মকর্তা এসআই পরিমল দাস বলেন, আমরা গোপন সূত্রে খবর পাই যে, ধর্মসাগর পশ্চিম পাড়ের একটি বাসা মাদক মজুদের জন্য ভাড়া করে এরা ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকা হতে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে এবং বিভিন্ন এলাকায় পাইকারী ও খুচরা বিক্রি করে। খবর পেয়ে গত ২৪ এপ্রিল বিকাল ৩টায় চেয়রম্যান গলির একটি বাসার ৬ তালার একটি ফ্লাটে তল্লাশী চালিয়ে প্রায় ১,২০,০০০ (এক লক্ষ বিশ হাজার) টাকার গাজাসহ উক্ত আসামীদের আটক করি।

উক্ত আসামীদের বিরুদ্ধে এসআই পরিমল দাস বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠান। সিডিএমএস সার্চ করে দেখা যায় আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আদালতে মামলা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *