শৈলকুপায় ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম,শহরে পুলিশ মোতায়েন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ শৈলকুপা রুহুল খান নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে দূর্বৃত্তরা।
রুহুল পৌর এলাকার কাজীপাড়া গ্রামের আয়ুব আলী খানের ছেলে। সে ছাত্রীলীগ কর্মী বলে জানান আহতের চাচা তৈয়বুর রহমান খান। সোমবার বিকাল ৫টার দিকে পৌর এলাকার কবিরপুর তিন রাস্তার মোড়ে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা।
স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে জান। পরে অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসক। সর্বশেষ খবরে জানা গেছে তাকে ফরিদপুর মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছাত্রলীগ কর্মী রুহুল কবিরপুর খাদ্য গুদাম এলাকা থেকে কবিরপুর তিন রাস্তার মোড়ে পৌছালে কয়েকজন যুবক তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। তার দু’পা ও হাতে এলোপাতাড়ি কোপানো হয়।
পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে জান স্থানীয়রা।
শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক রাকিবুল হাসান জানান, রুহুল নামের এক যুবককে আহতাবস্থায় জরুরী বিভাগে নিয়ে আসলে তাকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।
শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সোমবার বিকালে কবিরপুরে রুহুল নামের এক যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে দূর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
কেন এই হামলার ঘটনা ঘটল, এমন নানা প্রশ্নে কয়েকটি বিষয় সামনে এসেছে। কয়েক মাস আগে পৌর এলাকায় তরুন নামের এক যুবক কে কুপিয়ে মুমুর্ষ অবস্থায় ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা। সেই হামলার জেরে এই হামলার ঘটনা ঘটতে পারে বলে অনেকের ধারনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *