রূপসায় শ্যালককে মেরে হসপিতালে পাঠিয়েছে দুলাভাই!

নাহিদ জামান, খুলনা প্রতিনিধিঃ রূপসা উপজেলার তালতলা গ্রামে গত ১৯ এপ্রিল বুধবার পারিবারিক কলহের জের ধরে রাত আনুমানিক ৯ টার সময় তালতলা গ্রামের আলম হাওলাদার পিতা মৃত আমির হোসেন হাওলদার কে তার নিজ বাড়ীতে ফেলে, তার নিজের বড় বোনের স্বামী কালাম কাজী ভাগ্নে মাহাবুব কাজী, মামুন কাজী এবং বোন নাজমা বেগম, মারাত্মক আহত করে।
আহত আলম হাওলাদার কে চিকিৎসার জন্য দ্রুত রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আলম হাওলাদার আজ ২০ মে রাত ৯ টায় প্রতিবেদক কে জানান, আমার বড় বোন, বোনের স্বামী এবং দুইটা ভাগ্নে আমার বাড়িতে এসে আমার স্ত্রী কে ডাকতে থাকে এবং নানা রকম গালি গালাজ করে আমার স্ত্রী কে ঘর থেকে বের হতে বলে। আমি আমার স্ত্রী কে ঘর থেকে রের হইতে নিষেধ করলে, আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়। এবং আমাকে লাঠি দিয়ে হত্যার উদ্দ্যেশে মারতে থাকে। এক পর্যায়ে আমার মাথা ফেটে রক্তাত্ব হলে আমি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যাই। দ্রুত আমাকে আমার পরিবারের লোকজন উপজেলা স্থাস্ব্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আমার মাথায় ১২ টি সেলায় লেগেছে। এছাড়া সমস্থ শরীর পিটিয়ে রক্তাক্ত করেছে। থানায় কোন অভিযোগ করছেন কিনা জানতে চাইলে, তিনি জানান থানায় অভিযোগ করেছি। অভিযোগ করলে, থানা থেকে জানিয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *