চুয়াডাঙ্গায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ভস্মিভূত হলো ৬টি পরিবারের স্বপ্ন

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ভস্মিভূত হয়েছে ৬টি পরিবারের ১০টি ঘর। সেই সাথে পুড়েছে ৬টি পরিবারের স্বপ্ন। শনিবার (২২ মে) বিকেলে সদর উপজেলার মাছেরদাইড় গ্রামে ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা।
গ্রামের লোকজন জানান, বিকেলে গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে ইছান আলীর বাড়ীর রান্না ঘরে হঠাৎ আগুন লাগে। মুহূর্তেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে তার বসত ঘরে। এতে তার ঘরে থাকা ভূট্টা বিক্রির নগদ ৫০ হাজার টাকাসহ সবকিছু পুড়ে যায়। তার ঘর থেকে পার্শ্ববর্তী কৃষক তাইজেল ইসলামের বাড়ীতে আগুন লাগে। পর্যায়ক্রমে আগুন ছড়িয়ে পড়ে তার ছেলে রুবেল হোসেন, প্রতিবেশী বাবুর আলী, জানারুল ইসলাম ও জুলহাস হোসেনের বাড়ীতে। আগুনে পুড়ে যায় কৃষক জুলহাস হোসেনের দু’টি গরু। প্রতিবেশীদের সহযোগীতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয় বাড়ীর মালিকরা। পওে, খবর দেওয়া হয় চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট। দুই ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নেয় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।
ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ীর মালিক তাইজেল ইসলাম জানান, আলমসাধু কেনার জন্য ঘরে রাখা গরু বিক্রির নগদ ১ লাখ ১০ হাজার টাকা ছিল, ৪০ মন ধান, চাল, ভ্ট্টূাসহ খাবার জিনিস সব পুড়ে গেছে।
চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ষ্টেশন অফিসার জুয়েল রানা জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ফায়ার সার্ভিসের দুইটা ইউনিট। প্রায় দুই ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। দিনমজুর ইছানের রান্না ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত। সব মিলিয়ে প্রায় ৮ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
সদর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে ২৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা করা হয়েছে বলে জানান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান।###

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *