মানুষের বিরুদ্ধে মানুষ…সেন্টু রঞ্জন চক্রবর্তী

যুদ্ধে পিতামাতাহীন সকল শিশুদের জন্য
(আগরতলা ২৬/০৫/২০২১)

মানুষের বিরুদ্ধে মানুষের
এমন নির্মমতা ভাবতেও অবাক লাগে,
মাঝে মাঝে মনে হয়
কালের স্রোতে আমরা হয়তো
হিংস্র প্রাণীতে রূপান্তরিত হয়ে গেছি  |

নিরপরাধ শিশুরা যখন
মাতাপিতার লাশের পাশে বসে কাঁদে,
তখনো কি
আমাদের বিবেক তাড়িত হয়না ?
অসহায় এ অবুঝদের কি দিয়ে সান্তনা দেবে ?
কারো কাছে কি আছে কোনো ভাষা ?
ক্ষুধার্ত এ শিশুর মুখে
এক টুকরো রুটি
কে দেবে বলো ?
কে নেবে তাদের আগামীর দায়ভার ?

এ মাটির বুকে
আর কতো মাটি চাপা দেবে লাশ ?
মাটির পরতে পরতে শোকের কান্দন
একবার কান পেতে শুনে নাও
স্বজন হারানোর মতো কষ্ট
কি করে মাটি ধারণ করে চলেছে  |

এতো মৃত্যু
এতো ক্ষয়
এতো বিপর্যয়
ঘড়ির কাটার মতো ঘুরে
তোমার দিকেও তাকাবে সহসাই,
তোমার পালা যখন আসবে
সেক্ষণে আমাদের খুশি হবার কিছু নেই,
কিন্তু
এ অপমৃত্যু দিয়ে তোমাদের কাজ কি  ?

তোমরা যারা যুদ্ধবাজ
তোমাদের এমন নিষ্ঠুরতাকে আমি
অন্তর থেকে ঘৃণা করি,
অপেক্ষায় দিন গুনি
তোমাদেরও অভিশপ্ত দিন আসন্ন
এবং
তোমাদের পতন ও দরজায় কড়া নাড়ছে |

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *