কুমিল্লায় জনতার ধাওয়ায় পিস্তল ফেলে পালিয়েছে সন্ত্রাসী সায়েম

কুমিল্লা: কুমিল্লায় জনতার ধাওয়ায় এক সন্ত্রাসী পিস্তল ফেলে পালিয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে পিস্তলটি উদ্ধার করে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় (২৫ মে) কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার পিপুলিয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে।এনিয়ে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যেও সৃষ্টি হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার চৌয়ারা ইউনিয়নের যুবলীগ নেতা মনির ফরাজির ওপর একই ইউনিয়নের টঙ্গীরপাড় গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে সন্ত্রাসী সায়েম পিস্তল ঠেকিয়ে হামলা চালায়। এসময় সন্ত্রাসী সায়েমকে স্থানীয় জনতা ধাওয়া করলে, সে পিস্তল ফেলে পালিয়ে যায়। তিনি চট্টগ্রাম নগরীর একজন তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। সম্প্রতি চৌয়ারা ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা মনির ফরাজীর সঙ্গে সায়েমের বিরোধ সৃষ্টি হয়। সম্প্রতি সায়েম টুঙ্গিরপাড় নিজ বাড়িতে অবস্থান করে এলাকায় প্রভাব বিস্তার শুরু করে। তিনি প্রায়ই পিস্তল প্রদর্শন করে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়। ইতিপূর্বে সায়েম চৌয়ারা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক শামসুল হকের ওপরও হামলা চালায় বলে অভিযোগ রয়েছে।
খবর পেয়ে রাতেই সদর দক্ষিণ মডেল থানার এস আই খাদেমুল বাহার ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধ পিস্তলটি উদ্ধার করে।এ ঘটনায় বধুবার সকালে যুবলীগ নেতা মনির ফরাজী বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় হত্যাচেষ্টার মামলা দায়ের করেন।
এ বিষয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি দেবাশী চৌধুরী জানান, সন্ত্রাসী সায়েমের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, তাকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *