রাস্তার আশায় দাঁড়িয়ে আছে ব্রিজ!

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের হুরুয়ার কান্দা ও মুসলিমপুর এলাকায় একটি খালের ওপর ব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে। ব্রিজ এর কাজ সম্পুর্ন করে থাকলেও সেখানে নেই কোন উপযোগী রাস্তা। সেতুর আশপাশের নাই কোন মাঠির অস্তিত্ব। হুরুয়ার কান্দা গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দা ফজলুর রহমান জানান, ব্রিজটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে বেশ কয়েক বছর হয়ে গেছে,এলাকাবাসী তার কোন উপকার পাচ্ছে না।
ব্রিজ এর পাশেই একটি পাথরে খোদাই করে লেখা রয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতর সেতু/কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্প।
সুনামগঞ্জ জেলা শহর থেকে হুরুয়ারকান্দা গ্রামে যেতে হলে চাঁদনী ঘাট নৌকা দিয়ে নদী পাড়ি দিয়ে সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়ন এর ইব্রাহিমপুর গ্রাম হয়ে মুসলিমপুরের মধ্যে দিয়ে বালাকান্দা বাজার হয়ে প্রায় ৭ কিঃমি রাস্তা অতিবাহিত করে হুরুয়ারকান্দা গ্রামে প্রবেশ করতে হয়। মুসলিমপুরের মধ্যে দিয়ে হুরুয়ারকান্দা গ্রামে যাওয়ার রাস্তাটা সম্পুর্ণ করলে হুরুয়ারকান্দা গ্রামের লোকজনের সময় ব্যয় এবং অর্থ ব্যয় থেকে রক্ষা পাবে সাধারণ মানুষ। যে খালের উপর ব্রিজ করা হয়েছে তার পুর্ব পাসে রয়েছে হুরুয়ারকান্দা,মুসলিমপুর, অক্ষয়নগর গ্রামের অনেক জমি নিয়ে সুবিশাল গুছর। হুরুয়ারকান্দা গ্রামের লোকজনের গরু, মহিষ, ছাগল এই গুছরে নিয়ে যেতে পারে না। গুছর নামেই আছে কিন্তু হুরুয়ারকান্দা গ্রামের লোকজনের গরু, মহিষ, ছাগল নিয়ে যেতে পাড়েনা এই দুই পাশে মাঠি বিহীন ব্রিজ এর জন্য। হুরুয়ারকান্দা গ্রামের লোকজনের কৃষি পন্য সামগ্রি বিক্রয়ের জন্য শহরে নিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। যখন পাহাড়ি ঢল আসে তখন নদীর পানিতে একাকার হয়ে যায়, তখন কৃষকের কৃষি পন্য নিয়ে পড়তে হয় নানান বিপধের মুখে। কয়েকবছর আগে হুরুয়ারকান্দা ও মুসলিম পুর এই খালের উপর ব্রিজ স্তাপন করা হলেও কোন ধরনের রাস্তা নেই ব্রিজ এর দুই পাশে।সরেজমিনে দেখা যায়, সেতুর দু’পাশেই পায়ে চলাচলের জন্য ক্ষেতের সমতলে একটি সরু রাস্তা (আইল) রয়েছে। আর কৃষি জমির আইল ধরেই ওই সেতু ব্যবহার করতে হবে। বর্ষাকালে অল্প বৃষ্টি হলেই ধান ক্ষেতসহ ওই আইলটি বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে যায়। এসময় সেতুটি পানিতে ভাসমান অবস্থায় দেখা গেলেও রাস্তার অবস্থান বোঝার উপায় থাকে না। গ্রাম বাসির অভিযোগ, উঁচু করে রাস্তা নির্মাণ না করে শুধু ব্রিজ নির্মাণ হলো পরিকল্পনাবিহীন একটি কর্ম।
স্থানীয় হুরুয়ারকান্দা গ্রামের বাসিন্দা সাচ্ছু মিয়া বলেন, রাস্তা নির্মাণ না করার ফলে সেতুটি জনস্বার্থে কোনো কাজে আসছে না। এ স্থানটি খুব জনগুরুত্বপূর্ণ আর জনসাধারণ ওই এলাকা দিয়ে চলাচল করার সর্বউত্তম রাস্তা।
হুরুয়ারকান্দা গ্রামের সচেতন মহলের পক্ষ থেকে জানায় যে, গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে এই ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছে মানুষের সুবিধা পাওয়ার জন্য। এলাকাবাসি আরো জানান,আরো কিছু টাকা যদি এই রাস্তার জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয় তাহলে এলাকাবাসি ব্যাপক কষ্ট থেকে মুক্তি পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *